Advertisement
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২
festival

করোনায় থিমের পুজোয় কোপ, মণ্ডপসজ্জা ছেড়ে নিজেই প্রতিমা বানান চুঁচুড়ার সত্যজিৎ

হুগলির চুঁচুড়ার পিপুলপাতির বাসিন্দা সত্যজিৎ শীল মণ্ডপসজ্জার কাজ করতেন ২০১১ সাল থেকে।

প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সত্যজিৎ শীল।

প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত সত্যজিৎ শীল। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
চুঁচুড়া শেষ আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২০:৩৩
Share: Save:

করোনার কোপ পড়েছে পুজো বাজেটে। তাই থিমের চাহিদা নেই জেলায়। ফলে কাজ নেই মণ্ডপশিল্পীদেরও। খরচসাপেক্ষ থিমের পুজো ছেড়ে জেলার বহু উদ্যোক্তা এ বারও ব্যস্ত নমো নমো করে উৎসব পালনে। এমন পরিস্থিতিতে পুজোর ভিন্ন কাজ খুঁজে নিচ্ছেন অনেকেই।

হুগলির চুঁচুড়ার পিপুলপাতির বাসিন্দা সত্যজিৎ শীল মণ্ডপসজ্জার কাজ করতেন ২০১১ সাল থেকে। হুগলি জেলার বহু বড় পুজোয় থিমের মণ্ডপ তৈরি করেছেন। শিল্পী হিসাবে সুনাম কুড়িয়েছেন সত্যজিৎ। তবে অতিমারির দ্বিতীয় বর্ষে বেনজির অভিজ্ঞতার সম্মুখীন ওই শিল্পী। থিমের পুজোয় এ বার আগ্রহ দেখাচ্ছেন না পুজো উদ্যোক্তারা। মণ্ডপ তৈরির বরাতও পাননি সত্যজিৎ। ফলে প্রতিমা তৈরি করতে শুরু করেছেন তিনি। তাঁর বিশেষত্ব ছোট প্রতিমা নির্মাণ।

সত্যজিতের কথায়, ‘‘২৬ বছর আগে প্রথম ঠাকুর তৈরি শুরু করি আমি। এর পর থেকে প্রতি বছর দুর্গা প্রতিমা গড়ি। নানা কাজের ফাঁকে ধীরে ধীরে গড়ে তুলি প্রতিমা। এ বার থিমের কাজ নেই। তাই ব্যস্ততাও নেই। ফলে বাড়িতে প্রতিমা তৈরিতে বেশি করে মন দিতে পেরেছি।’’ শিল্পীর মতে, ‘‘ছোট প্রতিমা নিখুঁত করে গড়া যায়। কিন্তু তা বড় প্রতিমা হলে সম্ভব নয়। তাই বড় প্রতিমা গড়ার কথা ভাবি না। এর পর পুরোহিত বা মন্ত্র ছাড়া নিজে নিজেই পুজো করি।’’ সত্যজিৎ আরও বলছেন, ‘‘মফস্সলে বড় বাজেট অথবা থিমের পুজো করতে বেগ পেতে হয়। চাঁদার টাকায় থিম হয় না। কলকাতায় বড় বড় বিজ্ঞাপনদাতারা আছে। কিন্তু করোনার জন্য এ বারও পুজো সে ভাবে হচ্ছে না।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.