Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

Conflict in BJP: সাংগঠনিক বৈঠকে মার খেলেন নেতা-কর্মীরাই, আরও প্রকট বিজেপি-র গোষ্ঠী কোন্দল

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাওড়া ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৬:১০
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

বিজেপির ভোট-পরবর্তী সাংগঠনিক বৈঠকে নেতা ও কর্মীদের মধ্যে মারপিটের ঘটনায় দলীয় অন্তর্দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসে পড়ল হাওড়ায়।

বুধবার উত্তর হাওড়ার সালকিয়ায় সাংগঠনিক বৈঠকে বিজেপির এক নেতা ও তিন কর্মীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ ওঠে দলেরই অন্য কয়েক জন নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনায় জখম হন চার জনই। বিশ্বনাথ মোদক নামে এক কর্মী গুরুতর আহত অবস্থায় হাওড়া জেলা হাসপাতালে ভর্তি। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসার পরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আহত কর্মীরা নেতাদের বিরুদ্ধে গোলাবাড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ দিকে বিজেপি পাল্টা দাবি করেছে, যিনি ওই বৈঠকে গোলমাল পাকিয়েছিলেন, তাঁকে পদ থেকে আগেই সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কারণ, তাঁর সঙ্গে তৃণমূলের গোপন আঁতাঁতের প্রমাণ মিলেছে।

বিজেপি সূত্রের খবর, সালকিয়ার নন্দীবাগানের একটি প্রেক্ষাগৃহে ওই দিন দলীয় কর্মীদের নিয়ে একটি সাংগঠনিক বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে উত্তর হাওড়া কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীর পরাজয় এবং বর্তমান সংগঠনের হাল-হকিকত নিয়ে দলীয় স্তরে আলোচনার ব্যবস্থা হয়। সেই বৈঠক চলাকালীন উত্তর হাওড়ার যুব মোর্চা সভাপতি রাজু দাস এবং কয়েক জন কর্মী রাজ্য এবং জেলা নেতাদের কিছু প্রশ্ন করেন। অভিযোগ, এর পরেই দলীয় নেতা-কর্মীরা উত্তেজিত হয়ে ওই চার জনের উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে কিল, চড় এবং ঘুষি মারতে থাকেন।

Advertisement

বিজেপি সদরের সভাপতি সুরজিৎ সাহা পাল্টা অভিযোগ করে জানান, রাজু দাস দলবল নিয়ে গোলমাল পাকিয়ে বিজেপির সভা বানচালের চেষ্টা করেছিল। তাঁকে আগেই যুব মোর্চার পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাঁর সঙ্গে তৃণমূলের আঁতাঁত আছে। তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হবে।



Tags:

আরও পড়ুন

Advertisement