×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

ফাইনালে হেরে প্রতিপক্ষকের উপর বোমাবাজির অভিযোগ, উত্তপ্ত ডোমজুড়

নিজস্ব সংবাদদাতা
ডোমজুড় ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৯:৫৯
এই মাঠেই খেলার পর ঝামেলায় জড়ায় ২ পক্ষ।

এই মাঠেই খেলার পর ঝামেলায় জড়ায় ২ পক্ষ।
নিজস্ব চিত্র।

ক্রিকেট প্রতিযোগিতার ফাইনাল ঘিরে দুই ক্লাবের মধ্যে সংঘর্ষ ও বোমাবাজিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠল হাওড়ার ডোমজুড়। সংঘর্ষে অন্তত ৩ জন আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তিনি এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ডোমজুড়ের কলোরাতে চারাবাগান ক্লাব একটি ক্রিকেট প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। ১৪টি ক্লাব সেই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। তার মধ্যে চারাবাগান ক্লাবও ছিল। ফাইনালে ওঠে চারাবাগান ক্লাব ও মিস্ত্রিপাড়া প্রতিবাদী সঙ্ঘ।

মঙ্গলবার ফাইনাল ম্যাচ চলার সময়ই একটি আউট নিয়ে দুই ক্লাবের ঝামেলা শুরু হয়। সেই ঝামেলা মিটিয়ে ফের ম্যাচ শুরু হলেও ফাইনালে শেষ পর্যন্ত চারাবাগান ক্লাবের কাছে হেরে যায় মিস্ত্রিপাড়া। অভিযোগ, ম্যাচ শেষের পর হঠাৎই মিস্ত্রিপাড়া প্রতিবাদী সঙ্ঘের কিছু যুবক লাঠিসোটা-ব্যাট-উইকেট নিয়ে চড়াও হয় চারাবাগান ক্লাবের খেলোয়াড়দের উপর। বাদ যাননি দর্শকরাও। ঘটনা ঘিরে বোমাবাজি হয় বলেও অভিযোগ।

Advertisement

বাদশা মল্লিক নামে স্থানীয় এক যুবকের মাথায় উইকেট দিয়ে মারা হয়। ঘটনাস্থলেই তিনি রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে ডোমজুড় গ্রামীণ হাসপাতাল এবং পরে কলকাতা এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাদশা এখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।

ইব্রাহিম মল্লিক নামে আয়োজক ক্লাবের এক কর্তার দাবি, ‘‘আম্পায়ার কোনও ভুল সিদ্ধান্ত নেয়নি। তা সত্ত্বেও পাশের পাড়ার ছেলেরা ইচ্ছে করে ঝামেলা পাকায়।’’

গোলমালের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ডোমজুড় থানার পুলিশ। বুধবারও এলাকার পরিস্থিতি থমথমে। তদন্ত শুরু করেছে ডোমজুড় থানার পুলিশ। এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

Advertisement