Advertisement
০২ অক্টোবর ২০২২
tap water

নিকাশি নেই, এই অজুহাতে বৈদ্যবাটীতে পুরসভার কলে তালা, বন্ধ হল ‘জলস্পর্শ’

নিপুণ হাতে সরকারি ট্যাপে ঝোলানো হয়েছে তালা। এই ঘটনা ঘটেছে হুগলির বৈদ্যবাটী পুরসভায়।

নিপুণ হাতে তালা দেওয়া হয়েছে পুরসভার কলে।

নিপুণ হাতে তালা দেওয়া হয়েছে পুরসভার কলে। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বৈদ্যবাটী শেষ আপডেট: ২৪ অক্টোবর ২০২১ ২০:৩২
Share: Save:

পুরসভার কল খোলা থাকলে তা থেকে জল বার হচ্ছে অবিরত। তার জেরে ক্ষতি হচ্ছে রাস্তার। ঘটছে দুর্ঘটনাও। এই অভিযোগ তুলে নিপুণ দক্ষতায় সেই সরকারি কলে ঝোলানো হল তালা। এই ঘটনা ঘটেছে হুগলির বৈদ্যবাটী পুরসভায়।

বৈদ্যবাটীর মরাদান এলাকায় রাস্তার পাশে একটি কল বসিয়েছে পুরসভা। নির্দিষ্ট সময় মেনেই তাতে জল আসার কথা। কিন্তু সেই কলের জল আক্ষরিক অর্থেই স্পর্শ করা যাচ্ছে না। স্থানীয় ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, রাস্তায় জল জমছে। তার জেরে ঘটছে দুর্ঘটনাও। তাই ওই কলে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। রতন দাস নামে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী অভিযোগ করলেন, ‘‘রাস্তায় জল গড়িয়ে নামছে। তার জেরে সমস্যা দেখা দিয়েছে। তাই এই ব্যবস্থা। এ ছাড়া আর কোনও কারণ নেই। জল নিকাশের জায়গা থাকলে আর এই ব্যবস্থা করতে হত না আমাদের। দুর্ঘটনা হলে কী করব?’’ উপানন্দ চট্টোপাধ্যায় নামে এক স্থানীয় বাসিন্দার বক্তব্য, ‘‘রাস্তা ভেঙে যাচ্ছে। যাঁরা জল ব্যবহার করছেন তাঁরা কল বন্ধ করছেন না। তাই দোকানদাররা তালা দিয়েছেন।’’

পানীয় জলের প্রয়োজন হলেও কলে ঝোলানো তালার চাবি মিলছে না। এ ভাবে সরকারি কলে তালা ঝোলান যায় কি না সেই প্রশ্নও তুলেছেন অনেকে। এ নিয়ে বৈদ্যবাটী পুরসভার প্রশাসক তথা চাঁপদানি বিধানসভার বিধায়ক অরিন্দম গুঁই বলেন, ‘‘এই ঘটনার কথা প্রথম শুনলাম। ছবিতে দেখলামও। সরকারি নলকূপে কে বা কারা তালা লাগিয়ে দিয়েছে জানি না। আমরা ব্যবস্থা নেব।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.