Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০১ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

কারখানা খোলার দাবিতে রিষড়ার ওয়েলিংটন জুট মিলে বিক্ষোভ তৃণমূলের

নিজস্ব সংবাদদাতা
রিষড়া ০৬ অক্টোবর ২০২১ ১৭:৩১
দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ ওয়েলিংটন জুট মিল।

দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ ওয়েলিংটন জুট মিল।
—নিজস্ব চিত্র।

পুজোর বোনাস এবং জুট মিল খোলার দাবিতে হুগলির রিষড়ার ওয়েলিংটন জুট মিলের সামনে বিক্ষোভ দেখাল তৃণমূল। গত সাত মাস ধরে বন্ধ কারখানাটি। বুধবার কারখানার সামনে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূলকর্মীরা। যদিও কারখানা খুলতে হলে শ্রমিক সংখ্যা কমাতে হবে বলে জানিয়েছেন মালিক কর্তৃপক্ষ।

বুধবার ওয়েলিংটন জুট মিলের সামনে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের বিক্ষোভে যোগ দেন কারখানার শ্রমিকরাও। কারখানা খোলার পাশাপাশি তাঁরা পুজোর বোনাসের দাবিও তোলেন। পরে মিলের ম্যানেজার এসকে খেলোয়াড়ের সঙ্গেও দেখা করেন একই দাবি জানান তাঁরা। ওই কারখানার শ্রমিক নাদিম আহমেদ বলেন, ‘‘গত ৭ মাস ধরে কারখানা বন্ধ। মিল কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের পুজোর বোনাস দিতে চাইছেন না। তাই এই বিক্ষোভ।’’ বিক্ষোভের নেতৃত্বে ছিলেন আরামবাগের সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের স্বামী তথা তৃণমূল নেতা শাকির আলিও। তিনি বলেন, ‘‘কারখানা পুজোর মধ্যে খুলতে হবে এবং বোনাস দিতে হবে। আমরা কারখানার ম্যানেজারের সঙ্গে দেখা করে এই দাবি জানিয়েছি। মালিকপক্ষের পারিবারিক অশান্তির জন্য কারখানার শ্রমিকরা ভুগছেন। তা হবে না।’’

Advertisement

জুট মিলের ম্যানেজার যদিও দাবি করেন, মিলক পক্ষ বোনাস দিতে ইচ্ছুক। কিন্তু টাকার অভাবে তা হয়ে উঠছে না। তিনি বলেন, ‘‘মিল মালিক বোনাস দিতে চাইছেন। কিন্তু তাঁর হাতে টাকা নেই। কিছু পুরনো মালপত্র কারখানা চত্বরে পড়ে রয়েছে। সেগুলি বিক্রি করে পুরো বোনাস দেওয়া যেতে পারে। মিলের তিনটি স্বীকৃত ইউনিয়ন রয়েছে। তাঁদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে মিল খোলার ব্যাপারে। তবে উৎপাদনের বিষয়ে মালিকের বক্তব্য মানতে নারাজ শ্রমিক সংগঠনগুলি। তাই মিল খোলা যাচ্ছে না। লোকসান করে মিল চালানো সম্ভব নয়। এখন প্রতি টন উৎপাদনে ৮০ জন শ্রমিক রয়েছেন। সেই সংখ্যা ৪০-এর নীচে নামিয়ে আনতে হবে। আমরা শ্রমমন্ত্রীকেও বিষয়টি জানিয়েছি।’’

আরও পড়ুন

Advertisement