Advertisement
২০ মে ২০২৪
Attack in Hindmotor Rail Station

ট্রেনে চুলোচুলিতে শেষ নয়, হিন্দমোটর স্টেশনে ছুরি দিয়ে তরুণীর নাক কাটলেন মহিলা!

স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার হিন্দমোটর স্টেশনে ট্রেন ধরার জন্য অপেক্ষা করছিলেন যাত্রীরা। সেই সময় তিন জন মহিলার মধ্যে বচসা শুরু হয়। তখন আচমকা এক জন একটি ফলকাটা ছুরি বার করেন ব্যাগ থেকে।

Hindmotor Station

হিন্দমোটর স্টেশনে হয় রক্তারক্তি কাণ্ড। —নিজস্ব চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
হিন্দমোটর শেষ আপডেট: ১২ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৭:১১
Share: Save:

ঝগড়া করতে করতে স্টেশনে ঢুকেছিলেন তিন মহিলা যাত্রী। স্টেশনে ঢুকে সেই ঝামেলা গড়াল হাতাহাতিতে। এক জন ফল কাটার ছুরি দিয়ে সোজা কোপ বসালেন এক তরুণীর নাকে। স্টেশনে রক্তারক্তি কাণ্ডে শোরগোল পড়ে যায়। কোনও রকমে আহত তরুণীকে উদ্ধার করে কয়েক জন নিয়ে যান উত্তরপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার হিন্দমোটর স্টেশনে ট্রেন ধরার জন্য অপেক্ষা করছিলেন যাত্রীরা। সেই সময় তিন জন মহিলার মধ্যে বচসা শুরু হয়। তখন আচমকা এক জন একটি ফলকাটা ছুরি বার করেন ব্যাগ থেকে। ছুরির আঘাতে জখম হন এক তরুণী। তাঁর কান এবং মুখে আঘাত লাগে। নাকের একটা অংশ কেটে যায়। যন্ত্রণায় চিৎকার শুরু করেন তিনি। খবর পেয়ে রেল পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। তরুণীকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। এই ঘটনা প্রসঙ্গে পঙ্কজ রায় নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘‘ওই মহিলারা সবাই একই ট্রেনের সহযাত্রী। শ্রমিকের কাজ করেন। কয়েক দিন ধরে নিজেদের মধ্যে কোনও বিষয় নিয়ে ওদের মধ্যে ঝামেলা চলছিল। নিজেদের মধ্যে আগেও ওদের বচসা হয়েছে ট্রেনে।’’ শম্ভু দাস নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘‘ওভারব্রিজ দিয়ে ঝগড়া করতে করতে নামছিলেন তিন জন। তাঁদেরই এক জন অন্য জনকে ছুরি দিয়ে আঘাত করেন। নাক এবং কান কেটে যায় ওই তরুণীর।’’

রেল পুলিশ উত্তরপাড়া হাসপাতালে পৌঁছে দু’জনকেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। জানা গিয়েছে, আক্রান্ত তরুণীর নাম রিমা সিংহ। তিনি শ্রীরামপুরের বাসিন্দা। হামলাকারীর নাম করুণা দাস। তাঁর বাড়ি কুন্তিঘাটে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Hindmotor Hooghly Rail station Crime
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE