Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Jagdeep Dhankhar: সাফল্যের দাবির সঙ্গে মিল নেই সরকারি তথ্যের, বাণিজ্য সম্মেলন নিয়ে শ্বেতপত্র চান ধনখড়

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৫ নভেম্বর ২০২১ ১৫:২৩
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের।
—ফাইল চিত্র।

আরও বিনিয়োগ টানার লক্ষ্যে আগামী বছর ২০-২১ এপ্রিল ফের বিশ্ব বঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলন (বিজিবিএস)-এর আয়োজন করতে চলেছে রাজ্য সরকার। বুধবার দিল্লি সফরে ওই সম্মেলনে উপস্থিত থাকার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই বাণিজ্য সম্মেলনের সাফল্য নিয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি তুললেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এ নিয়ে মমতাকে চিঠিও দিয়েছেন ধনখড়।
বৃহস্পতিবার এ নিয়ে টুইট করেছেন ধনখড়। মমতা অফিশিয়াল অ্যাকাউন্টটিকে জুড়ে দিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘বিজিবিএস পাঁচ বার কেমন হয়েছে, সে ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তথ্য এবং শ্বেতপত্র দাবি করছি। ‘বিরাট সাফল্যের’ লম্বাচওড়া দাবির সঙ্গে বাস্তবের তো মিল নেই।’ এর সঙ্গে মমতাকে তিনি যে চিঠিটি দিয়েছেন তাও তুলে ধরেছেন। চিঠিতে তাঁর দাবি, ২০২০ সালে বাণিজ্য সম্মেলন নিয়ে একাধিক তথ্য জানতে চেয়ে তিনি রাজ্য সরকারকে চিঠি দিয়েছিলেন। ২০১৬ সাল থেকে ওই সম্মেলন করতে কত খরচ হয়েছে, কোন কোন সংস্থার মাধ্যমে টাকা খরচ হয়েছে, সরাসরি না ফিকির মাধ্যমে কোন কোন সংস্থাকে টাকা দেওয়া হয়েছে, কতগুলি মউ সই হয়েছে, ২০১৬ সাল থেকে কত বিনিয়োগ হয়েছে, কত কর্মসংস্থান হয়েছে— ইত্যাদি প্রশ্ন ফের এক বার জানতে চেয়েছেন রাজ্যপাল। তথ্য জানতে চাওয়া নিয়ে তাঁর সাংবিধানিক অধিকারের কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন তিনি। ধনখড়ের বক্তব্য, বিশ্ববঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনের সাফল্য নিয়ে লম্বাচওড়া কথা বলা হলেও আপাত ভাবে তার সঙ্গে সরকারি তথ্যের কোনও বাস্তব মিল নেই।

Advertisement

দু’বছর পর ২০২২ সালে বাণিজ্য সম্মেলন করতে চলেছে রাজ্য। কিছু দিন আগেই তার ঘোষণা করেছে রাজ্য। বুধবার দিল্লি সফরকালে প্রধানমন্ত্রীকে ওই সম্মেলনে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়ে আসেন মুখ্যমন্ত্রী। মোদীর সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন।’’ এই আবহে রাজ্যপালের টুইট নতুন মাত্রা যোগ করল।

আরও পড়ুন

Advertisement