Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
Dead

ফুলবাগানে কাচ ভেঙে তিন তলা থেকে নীচে পড়ে মৃত প্রৌঢ়া

মিষ্টির দোকানের তেতলায় থাকা রেস্তরাঁটির দরজার বাইরে রয়েছে লিফ্‌ট। আর তার পাশেই একচিলতে জায়গা কাচ দিয়ে ঘেরা। সেখান থেকেই পদ্মা নীচে পড়ে গিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

A Photograph representing a dead body

তেতলার একটি কাচের দেওয়াল ভেঙে নীচে পড়ে গিয়ে মৃত্যু হল এক প্রৌঢ়ার। প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২০ এপ্রিল ২০২৩ ০৬:২১
Share: Save:

তেতলার একটি কাচের দেওয়াল ভেঙে নীচে পড়ে গিয়ে মৃত্যু হল এক প্রৌঢ়ার। বুধবার বিকেলে ফুলবাগান থানা এলাকার উমেশচন্দ্র ব্যানার্জি রোডের এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতার নাম পদ্মা মালু (৫৭)। তাঁর বাড়ি হাওড়ার শিবপুরে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন ওই প্রৌঢ়া একটি মিষ্টির দোকানে গিয়েছিলেন। তেতলা ওই দোকানের একতলায় রয়েছে মিষ্টির সম্ভার, দোতলায় প্যাকেজিংয়ের ব্যবস্থা। আর তেতলায় রয়েছে রেস্তরাঁ। এ দিন প্রথমে একটি বিকট আওয়াজ শুনে ছুটে বাইরে বেরিয়ে এসেছিলেন ওই মিষ্টির দোকানের কর্মীরা। তাঁরা দেখেন, দোকানের সামনে ফুটপাতে পড়ে রয়েছেন ওই প্রৌঢ়া। তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় নার্সিংহোম ঘুরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে জানান।

ওই মিষ্টির দোকানের তেতলায় থাকা রেস্তরাঁটির দরজার বাইরে রয়েছে লিফ্‌ট। আর তার পাশেই একচিলতে জায়গা কাচ দিয়ে ঘেরা। সেখান থেকেই পদ্মা নীচে পড়ে গিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। ওই দোকানের মালিক ললিত গুপ্ত জানান, এ দিন দুপুরে পদ্মা-সহ ১২-১৪ জন মহিলা রেস্তরাঁয় পার্টি করতে আসেন। খাওয়াদাওয়া শেষ হলে অনেকে নীচে নেমে আসেন এবং বিল মিটিয়ে দেওয়া হয়। তাঁদের সঙ্গে নীচে নেমেছিলেন ওই প্রৌঢ়াও। ললিত বলেন, ‘‘লিফ্‌টের পাশের ওই কাচের জায়গায় দাঁড়িয়ে কয়েক জন নিজস্বী তুলছিলেন। তাঁদের সঙ্গে ছবি তুলতে ওই প্রৌঢ়া ফের সেখানে উঠে যান। এর পরে ছবি তোলার সময়ে হোঁচট খেয়ে তিনি কাচের দেওয়ালের উপরে পড়ে যান। তখনই কাচ ভেঙে তিনি প্রথমে ক্যানোপির উপরে পড়েন, সেখান থেকে ফুটপাতে।’’ ললিত জানান, কর্মীদের ফোনে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে তিনি তাড়াতাড়ি দোকানে আসেন। তবে তত ক্ষণে ওই প্রৌঢ়াকে নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, তেতলার কাচের অংশটি ভাঙা। জায়গাটি পুলিশ ব্যারিকেড করে রেখেছে। ঘেরা জায়গায় রয়েছে কয়েকটি চেয়ার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE