×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৬ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

কাজ চলে গিয়েছিল লকডাউনে, অ্যাসিড খেয়ে ‘আত্মঘাতী’

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৭ মার্চ ২০২১ ০৬:২৭
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

অস্বাভাবিক মৃত্যু হল এক যুবকের। শুক্রবার রাতে, নিউ ব্যারাকপুর থানা এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম সজল মিস্ত্রি (২৫)। তাঁর বাড়ি নিউ ব্যারাকপুরের সাত নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম মাসুন্দার নেতাজি সুভাষ রোড বাইলেনে। ওই দিন দুপুরে তিনি অ্যাসিড খেয়েছিলেন বলে খবর। রাতে বারাসত জেলা হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, লকডাউনে কাজ চলে গিয়েছিল সজলের। তা নিয়ে বাড়িতে গোলমালও হত। সেই কারণেই তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন বলে পুলিশের ধারণা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সজল পার্ক সার্কাসের একটি বেসরকারি সংস্থায় কাজ করতেন। লকডাউনে তাঁর কাজ চলে যায়। তাঁর বাবা সুবোধ মিস্ত্রি স্থানীয় রেল স্টেশনে ফল
বিক্রি করেন। সজলের চাকরি যাওয়ায় সংসারে অভাব আরও বেড়ে যায়। তা নিয়ে অশান্তি হত পরিবারে। মাস কয়েক আগে এক বন্ধুর খাবারের দোকানে কাজ নিয়েছিলেন সজল।

সুবোধবাবু বলেন, “শুক্রবার সকালে আমার সঙ্গে টাকাপয়সা নিয়ে ওর কথা কাটাকাটি হয়। তার পরে দোকানে কাজে চলে যায়। দুপুরে শুনি, দোকানের মধ্যেই অ্যাসিড খেয়েছে।”
স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অসুস্থ অবস্থায় সজলকে বারাসত সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রাতে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। ঠিক কী কারণে তিনি অ্যাসিড খেয়েছিলেন, তা নিয়ে ধন্দে রয়েছেন পরিবারের লোকেরা। গত কয়েক মাস ধরে সজল মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন বলে জানিয়েছেন তাঁরা। থানায় কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। পুলিশ জানিয়েছে, একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

Advertisement
Advertisement