Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বইমেলায় মিছিল ঘিরে উত্তেজনা

বৃহস্পতিবার বিকেল চারটে নাগাদ বইমেলা চত্বরে জড়ো হয়ে কিছু মানুষ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে গান গাইছিলেন এবং স্লোগান দিচ্ছিলেন।

০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৩:৪৬
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বইমেলার ভিতরে একটি মিছিল ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল। বিজেপির একটি স্টলের সামনে তাদের সমর্থকদের সঙ্গে মিছিলকারীদের প্রথমে কথা কাটাকাটি এবং তার পরে ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়ে যায়। দু’পক্ষই স্লোগান, পাল্টা স্লোগান দিতে থাকে। সাময়িক ভাবে ঘটনাস্থলে উত্তেজনা ছড়ায়। বিধাননগর পুলিশের বাহিনী দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তার পরে মিছিল অন্য দিকে চলে যায়।

বৃহস্পতিবার বিকেল চারটে নাগাদ বইমেলা চত্বরে জড়ো হয়ে কিছু মানুষ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে গান গাইছিলেন এবং স্লোগান দিচ্ছিলেন। ক্রমশ সেই ভিড় বাড়তে থাকে। পরে তাঁরা মিছিল শুরু করেন। পুলিশ প্রাথমিক ভাবে মিছিল না করার আবেদন করে। পরে অবশ্য পুলিশের সঙ্গে কথা বলে মিছিল শুরু হয়। বইমেলার মাঠে বিভিন্ন দিক পরিক্রমা করতে করতে জনবার্তার স্টলের দিকে যখন মিছিল এগোয়, তখনই সমস্যা দেখা দেয়। মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের অভিযোগ, সে সময়ে ওই স্টল থেকে বিজেপি এবং আরএসএস সমর্থকেরা কার্যত তাঁদের দিকে ধেয়ে আসেন। শুরু হয় স্লোগান, পাল্টা স্লোগান। পরিস্থিতি কার্যত ধাক্কাধাক্কির স্তরে পৌঁছয়। তাঁদের অভিযোগ, বিজেপির কর্মীরা তাঁদের দিকে ধেয়ে এলেও পুলিশ নিষ্ক্রিয় ছিল।

বিজেপি নেতৃত্বের পাল্টা অভিযোগ, অতি বামেরা মিছিল করছিলেন। তাঁরা মিছিল করে তাঁদের স্টলের সামনে আসেন। প্রধানমন্ত্রীকে গালিগালাজ করেন। স্টলে ঢোকার চেষ্টা করেন। এর পরেই বিশ্ব হিন্দু পরিষদের স্টলের সামনেও একই কাণ্ড ঘটানোর চেষ্টা হয়। তাঁদের কর্মীরা প্রতিবাদ জানালে মিছিল চলে যায়। পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। তাঁদের অভিযোগ, পুলিশ উল্টে তাঁদের সমর্থকদের এক দিকে আটকে রেখেছে, এমনকি ধরে নিয়ে যাওয়ার ভয়ও দেখিয়েছে।

Advertisement

পুলিশ অবশ্য দু’পক্ষের অভিযোগ খারিজ করে জানিয়েছে, সাময়িক উত্তেজনা হয়েছিল। দু’পক্ষকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। পর্যাপ্ত পদক্ষেপ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

Advertisement