Advertisement
২৪ জুন ২০২৪
crime

লুঠ করল সব, তার পর সিমকার্ড আর কিছু টাকা ফেরতও দিয়ে গেল ‘মানবিক’ লুটেরা

একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, দুই দুষ্কৃতীকে প্রথমে তিনি আলমারির চাবি দিতে চাননি। তখন তাঁর মাথায় স্ক্রু ড্রাইভার ধরে ফের খুনের হুমকি দেওয়া হয়। ভয় পেয়ে তখন তিনি চাবি দিয়ে দেন। ঘর তছনছ করে দুষ্কৃতীরা প্রায় এক লক্ষ টাকা এবং সোনার গয়না নিয়ে যায়।

বৃদ্ধের আকুতিতে দুষ্কৃতীরা তাঁকে মোবাইলের দু’টি সিম ফেরত দিয়ে দেয়। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

বৃদ্ধের আকুতিতে দুষ্কৃতীরা তাঁকে মোবাইলের দু’টি সিম ফেরত দিয়ে দেয়। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৫ নভেম্বর ২০১৯ ১৪:২৭
Share: Save:

শহরে ফের দুষ্কৃতীদের ‘টার্গেট’ একাকী বৃদ্ধ। দক্ষিণ কলকাতার রানিকুঠীর অশ্বিনীনগরে বছর পঁচাশির এক বৃদ্ধের হাত-পা বেঁধে টাকা-গয়না লুঠ করল দুষ্কৃতীরা। তবে পালানোর আগে, গ্যাস বুকিংয়ে সমস্যা হবে জেনে ওই বৃদ্ধকে মোবাইলের দু’টি সিম এবং দু’হাজার টাকা দিয়ে যায় তারা। পুলিশের কাছে এমনটাই দাবি করেছেন অমল বসু নামের ওই বৃদ্ধ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বাড়িতে একাই থাকতেন প্রাক্তন রেলকর্মী অমল বসু। সোমবার গভীর রাতে আচমকা তাঁর ঘুম ভেঙে যায়। চোখ খুলে তিনি দেখেন, ঘরের মধ্যে দু’জন দাঁড়িয়ে রয়েছে। হকচকিয়ে যান তিনি। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাদের এক জন স্ক্রু ড্রাইভার নিয়ে বৃদ্ধের দিকে এগিয়ে আসে। চিৎকার-চেঁচামেচি করলে প্রাণে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

এর পর অমলবাবুর হাত-পা বেঁধে বিছানায় ফেলে রাখা হয়। তাঁর কাছ থেকে আলমারির চাবি নিয়ে চলে লুঠপাট। পুলিশের কাছে অভিযোগে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, দুই দুষ্কৃতীকে প্রথমে তিনি আলমারির চাবি দিতে চাননি। তখন তাঁর মাথায় স্ক্রু ড্রাইভার ধরে ফের খুনের হুমকি দেওয়া হয়। ভয় পেয়ে তখন তিনি চাবি দিয়ে দেন। ঘর তছনছ করে দুষ্কৃতীরা প্রায় এক লক্ষ টাকা এবং সোনার গয়না নিয়ে যায়।

অমলবাবু জানিয়েছেন, টাকাপয়সার সঙ্গে মোবাইলও নিয়ে যাচ্ছিল দুষ্কৃতীরা। তখন তিনি তাদের কাছে আকুতি জানান, টাকা-মোবাইল সব নিয়ে গেলে তিনি গ্যাসের বুকিং করবেন কী ভাবে! কারণ, এখন গ্যাস বুকিং করতে গেলে রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বর থেকেই ফোন করতে হয়। গ্যাস বুকিং হয়েছে কি না, ওই নম্বরেই তার এসএমএস আসে। বৃদ্ধের আকুতির পরিপ্রেক্ষিতে দুষ্কৃতীরা তাঁকে মোবাইলের দু’টি সিম ফেরত দিয়ে দেয়। সঙ্গে ফেরত দেয় দু’হাজার টাকা।

চিৎকার-চেঁচামেচি করলে প্রাণে মেরে ফেলা হবে বলে হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। নিজস্ব চিত্র।

দুষ্কৃতীরা এর পর ওই বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে যায়। তার পর অমলবাবু নিজেই হাত-পায়ের বাঁধন খুলে ঘরের বাইরে বেরিয়ে আসেন। দেখেন, সদর দরজা হাট করে খোলা। ঘরের বাইরে বৃদ্ধের একটি ব্যাগ রাখা ছিল। তাতে ছিল বিস্কুট ও ক্যাডবেরি। তা-ও নিয়ে যায় দুই দুষ্কৃতীরা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অশ্বিনীনগরেই কয়েকটা বাড়ি পরেই থাকেন ওই বৃদ্ধের ছেলে। বৃদ্ধ ওই রাতেই ছেলের বাড়ি গিয়ে তাঁকে সবটা জানান। তিনি এর পর যাদবপুর থানায় খবর দেন।

পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। দুষ্কৃতীরা বৃদ্ধের পূর্ব পরিচিত কি না তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা।

আরও পড়ুন: জঞ্জাল সাফের দুই ছবি পুজোর দুই সরোবরে

আরও পড়ুন: সৎমেয়েকে বিক্রির অভিযোগে গ্রেফতার

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Crime ranikuthi tollygunge dacoity
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE