×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৩ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

দু’দিনে উদ্ধার ৭৬ লক্ষ টাকা, গ্রেফতার ছ’জন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৭ মার্চ ২০২১ ০৬:০৪
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

শহর থেকে ফের উদ্ধার হল নগদ টাকা। এই নিয়ে গত দু’দিনে শুধু বড়বাজার এলাকা থেকেই বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে মোট ৭৬ লক্ষ ৫০০ টাকা। চলতি বছরে ভোটের দিন ঘোষণার পরে এত বেশি পরিমাণ টাকা উদ্ধারের ঘটনা এই প্রথম। ওই দু’দিনের ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে মোট ছ’জনকে।

বৃহস্পতি ও শুক্রবার মিলিয়ে বড়বাজারের ছ’টি জায়গা থেকে তদন্তকারীরা ওই টাকা উদ্ধার করেছেন। ধৃতদের দু’জনের বাড়ি বিহারে। বাকিরা এই রাজ্যের বাসিন্দা। লালবাজার সূত্রের খবর, উদ্ধার হওয়া টাকার কোনও নথি দিতে না পারায় এবং কোথা থেকে, কোথায় সে সব নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, তা নিয়ে উত্তর দিতে না পারায় পুলিশ ছ’জনকে গ্রেফতার করে। পুলিশের একটি সূত্রের দাবি, ভোটের সময়ে ওই টাকা ব্যবহার করার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। তবে ধৃতদের সঙ্গে কোনও রাজনৈতিক দলের পরিচয়সূত্র পাওয়া গিয়েছে কি না, তা নিয়ে মুখ খুলতে চায়নি লালবাজার।

পুলিশ সূত্রের খবর, শুক্রবার বিকেলে বড়বাজার থানা এলাকার রবীন্দ্র সরণি এবং মহাত্মা গাঁধী রোডের সংযোগস্থল থেকে নগদ টাকা-সহ ধরা পড়েন এক ব্যক্তি। বিহারের দ্বারভাঙা এলাকার বাসিন্দা রাজিউল্লাহ নামের ওই ব্যক্তির কাছ থেকে দশ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে। বিকেলেই এর কিছু সময় পরে ওই থানা এলাকার নন্দরাম মার্কেটের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ২১ লক্ষ ৬২ হাজার টাকা। এত টাকা সঙ্গে কেন? এ নিয়ে কোনও সদুত্তর দিতে না পারায় একবালপুরের বাসিন্দা খুরশিদ আলমকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই বিকেলেই নগদ দশ লক্ষ টাকা-সহ ধরা হয় অশোককুমার যাদব নামে অন্য এক ব্যক্তিকে। তাঁর বাড়ি দমদমের পূর্ব সিঁথি রোডে। লালবাজার জানিয়েছে, শুক্রবার রাতেই বড়বাজারের রূপচাঁদ রায় স্ট্রিট এবং শম্ভু মল্লিক লেন থেকে দু’টি পৃথক অভিযানে কুড়ি লক্ষ টাকা বাজেয়াপ্ত করে অতনু সাহা এবং বিক্রান্ত কুমার নামে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে বৌবাজার থানা।

Advertisement

এর আগে বৃহস্পতিবার ওই থানার পুলিশ বড়বাজার থেকেই ১৫ লক্ষ ৫০০ টাকা উদ্ধার করেছিল। গ্রেফতার করা হয়েছিল প্রমোদ কুমার নামে বিহারের ঔরঙ্গাবাদের এক বাসিন্দাকে।

লালবাজার সূত্রে জানানো হয়েছে, চলতি বছরে ভোটের দিন ঘোষণার আগে পুলিশ এক কোটিরও বেশি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছিল।

Advertisement