Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

সুড়ঙ্গ ফুঁড়ে শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশনে বেরোল ‘উর্বী’, এ বার লক্ষ্য সেই বৌবাজার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৯ অক্টোবর ২০২০ ১৭:৫৭
শেষ হল পূর্বমুখী সুড়ঙ্গ খননের কাজ। ছবি:এএফপি

শেষ হল পূর্বমুখী সুড়ঙ্গ খননের কাজ। ছবি:এএফপি

সুড়ঙ্গ খোঁড়ার বাধা পেরিয়ে শিয়ালদহে পৌঁছল টানেল বোরিং মেশিন (টিবিএম) ‘উর্বী’। এর আগে বৌবাজারের একটি অংশে নরম মাটির সঙ্গে জল এবং বালি থাকার কারণে সুড়ঙ্গ খননে বিপর্যয় ঘটে। আটকে যায় টিবিএম ‘চণ্ডী’। বন্ধ হয়ে যায় ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর কাজ।

নতুন ভাবে প্রকল্পের কাজ শুরু হলেও শিয়ালদহের কাছে মাটির ধরন কেমন থাকবে, তা নিয়ে চিন্তায় ছিলেন মেট্রোকর্তারা। কিন্তু এ বার আর বিপত্তি ঘটেনি। মাটির মান ভাল থাকায় বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর পূর্বমুখী সুড়ঙ্গ খননের পরীক্ষায় ‘লেটার মার্কস’ নিয়ে পাশ করল ‘উর্বী’।

গত শনিবার গভীর রাতে ‘উর্বী’ শিয়ালদহ উড়ালপুলের নীচের অংশ পেরিয়ে গিয়েছিল। এই কাজের জন্য তিন দিন উড়ালপুলে গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখতেও হয়। এ দিন দুপুরে শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন প্রকল্প এলাকায় পৌঁছয় ওই টিবিএম। সেই সঙ্গে শেষ হল পূর্বমুখী সুড়ঙ্গ খননের কাজ।

Advertisement



ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর পূর্বমুখী সুড়ঙ্গ খননের পরীক্ষায় ‘লেটার মার্কস’ নিয়ে পাশ করল ‘উর্বী’

আরও পড়ুন: পুজোর বরাতেই ঘুরে দাঁড়ানোর আশা​

বৌবাজার পর্যন্ত পশ্চিমমুখী সুড়ঙ্গ খোঁড়ার কাজ শুরু হবে ডিসেম্বর থেকে। তার পর লাইনপাতা এবং স্টেশনের কাজও দ্রুতগতিতে শেষ করা হবে বলে জানিয়েছেন ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর নির্মাণ সংস্থা কলকাতা মেট্রো রেল কর্পোরেশন লিমিটেডের আধিকারিকেরা।



২০২১-এ প্রকল্পের কাজ শেষ করার সময়সীমা ঠিক হয়েছে। ৮,৫৭৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে কেন্দ্র।

হুগলি নদীর তলা দিয়ে হাওড়া ময়দান থেকে সল্টলেক সেক্টর ফাইভ পর্যন্ত যাবে ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো। মোট দৈঘ্য ১৬.৫ কিলোমিটার। তার মধ্যে ১০.৮ কিলোমিটার মাটির তলা দিয়ে যাবে মেট্রো। মাটির উপর দিয়ে যাবে বাকি ৫.৭৫ কিলোমিটার। এই প্রকল্প শেষ হলে নদীর তলা দিয়ে এই প্রথম মেট্রো চলবে।

আরও পড়ুন: মন্দিরের সম্পত্তি নিয়ে বিবাদ, গায়ে কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে মারা হল পুরোহিতকে​

ইতিমধ্যেই ফুলবাগান থেকে সল্টলেক সেক্টর ফাইভ পর্যন্ত পরিষেবা শুরু হয়েছে। ২০২১-এ প্রকল্পের কাজ শেষ করার সময়সীমা ঠিক করা হয়েছে। সে জন্য ৮,৫৭৫ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে কেন্দ্র।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

আরও পড়ুন

Advertisement