Advertisement
০৬ ডিসেম্বর ২০২২

বাধা জীর্ণ বাড়ি, পিছোল ইস্ট-ওয়েস্ট সুড়ঙ্গের কাজ

হাওড়া ময়দান থেকে একই সময়ে দু’টি সুড়ঙ্গ কাটা শুরু হয়। গঙ্গা পেরোনোর সময়ে অনেকটা এগিয়ে যায় পূর্বমুখী (ইস্ট বাউন্ড) সুড়ঙ্গটির কাজ। তবে এসপ্ল্যানেড পৌঁছনোর মুখে  অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে সেটি। তুলনায় এগিয়ে গিয়েছে পশ্চিমমুখী (ওয়েস্ট বাউন্ড) সুড়ঙ্গটি।

ফিরোজ ইসলাম
শেষ আপডেট: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ০১:২৭
Share: Save:

এ যেন সেই খরগোশ আর কচ্ছপের প্রতিযোগিতার গল্প।

Advertisement

হাওড়া ময়দান থেকে প্রায় একই সময়ে যাত্রা শুরু করেছিল তারা। প্রথমে এক জন অনেকটা এগিয়ে গেলেও, আগে ধর্মতলা পৌঁছে কিন্তু বাজিমাত করতে চলেছে অন্য জন।

এ ক্ষেত্রে প্রতিদ্বন্দ্বীরা হল ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর জোড়া সুড়ঙ্গ। হাওড়া ময়দান থেকে একই সময়ে দু’টি সুড়ঙ্গ কাটা শুরু হয়। গঙ্গা পেরোনোর সময়ে অনেকটা এগিয়ে যায় পূর্বমুখী (ইস্ট বাউন্ড) সুড়ঙ্গটির কাজ। তবে এসপ্ল্যানেড পৌঁছনোর মুখে অনেকটাই পিছিয়ে পড়েছে সেটি। তুলনায় এগিয়ে গিয়েছে পশ্চিমমুখী (ওয়েস্ট বাউন্ড) সুড়ঙ্গটি। মেট্রো সূত্রের খবর, সব কিছু ঠিক থাকলে চলতি মাসের শেষে এসপ্ল্যানেড পৌঁছতে পারে সেটি। এখন রাজভবনের উত্তর প্রান্তে ৮ এবং ৯ নম্বর প্রবেশ পথের কাছাকাছি রয়েছে ওই সুড়ঙ্গ। ওই জায়গা থেকে এসপ্ল্যানেড স্টেশনের দূরত্ব প্রায় ১৫০ মিটার।

পূর্বমুখী সুড়ঙ্গটিকে অবশ্য ধর্মতলা পৌঁছনোর জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছু দিন। সেটি এখন স্টেশন থেকে প্রায় ৩৫০ মিটার দূরে রয়েছে। ওল্ড কোর্ট হাউস স্ট্রিটের জরাজীর্ণ পাঁচটি বাড়ির পরিসর পেরিয়ে এলেও আপাতত দিন দশেক ধরে পূর্বমুখী সুড়ঙ্গ খোঁড়ার কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। পশ্চিমমুখী সুড়ঙ্গের কাজ মিটলে তার পর আবার শুরু করা হবে পূর্বমুখী সুড়ঙ্গ খোঁড়ার কাজ। মেট্রো সূত্রে খবর, নিরাপত্তাজনিত কারণেই ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Advertisement

এক মেট্রো কর্তা জানান, পূর্বমুখী সুড়ঙ্গের উপরে ওল্ড কোর্ট হাউস স্ট্রিটে যে বাড়িগুলি রয়েছে, সেগুলির তুলনায় পশ্চিমমুখী সুড়ঙ্গের উপরে থাকা বাড়িগুলির বয়স কম। ওই বাড়িগুলির স্বাস্থ্যও তুলনামূলকভাবে ভাল। এর ফলে পশ্চিমমুখী সুড়ঙ্গটি খুঁড়তে অনেক কম সমস্যার মুখে প়ড়তে হয়েছে মেট্রো কর্তৃপক্ষকে। তাই ওই অংশের কাজ দ্রুত শেষ করে ফেলতে চাইছেন তাঁরা।

ফেব্রুয়ারির শুরুতে পূর্বমুখী সুড়ঙ্গের উপরে পাঁচটি জীর্ণ বাড়ির পরিসর পেরোতে গিয়ে মেট্রো কর্তৃপক্ষকে একাধিক বার সুড়ঙ্গ খোঁড়ার গতি কমাতে হয়েছিল। ওই বাড়িগুলির অবস্থা এতটাই খারাপ যে যাবতীয় সতর্কতা নেওয়া সত্ত্বেও একটি বাড়ির কিছুটা অংশ ভেঙে পড়ে। তাই আর কোনও ঝুঁকি না নিয়ে ওই সুড়ঙ্গটি খোঁড়ার কাজ সাময়িক ভাবে বন্ধ রেখেছেন মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

আপাতত, বি বা দী বাগের দিক থেকে গিয়ে গ্রেট ইস্টার্ন হোটেলের ঠিক আগে থমকে রয়েছে পূর্বমূখী সুড়ঙ্গ। এক মেট্রো কর্তা বলেন, “ওল্ড কোর্ট হাউস স্ট্রিটে সারাদিন যানবাহনের যা চাপ থাকে তাতে ওই রাস্তা বন্ধ রাখা সম্ভব নয়। ফলে দেরি হলেও পা মেপে এগোনো ছাড়া উপায় নেই।”

ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর নির্মাণ সংস্থা কলকাতা মেট্রো রেলওয়ে কর্পোরেশন লিমিটেড-এর (কেএমআরসিএল) জেনারেল ম্যানেজার (অ্যাডমিন) এ কে নন্দী বলেন, “সব ঠিক থাকলে মার্চ মাসের দ্বিতীয় বা তৃতীয় সপ্তাহে ধর্মতলা পৌঁছে যাবে দু’টি সুড়ঙ্গই।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.