Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বিয়ের জন্য হুমকি তরুণীকে, অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা, ঠুঁটো পুলিশ

অভিযুক্ত যুবকের নাম শাদাব খান। তাঁর দাদা শাহবাজ খান ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ব্লক তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৭:০২
Save
Something isn't right! Please refresh.
পুলিশের বিরুদ্ধে নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ।

পুলিশের বিরুদ্ধে নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ।

Popup Close

বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন একাধিক বার। কিন্তু, যুবকের সেই প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় বেলগাছিয়ার এক তরুণীকে বার বার হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয়,অডিয়ো বার্তা পাঠিয়ে তরুণীর মা-কে খুনের হুমকিও দিয়েছেন ওই যুবক। পুলিশের কাছে এ নিয়ে অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি বলে তরুণীর দাবি। কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, ওই যুবক এলাকার প্রভাবশালী তৃণমূল নেতার ভাই। পুলিশ তাই অভিযোগ পেয়েও বিষয়টি নিয়ে গড়িমসি করছে বলে তাঁর দাবি।

অভিযুক্ত যুবকের নাম শাদাব খান। তাঁর দাদা শাহবাজ খান ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ব্লক তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি। নিজেকে তিনি এলাকার বিধায়ক মালা সাহা এবং রাজ্যসভার সাংসদ শান্তনু সেনের ঘনিষ্ঠ বলেই দাবি করেন। বেলগাছিয়ার দত্তবাগানের বাসিন্দা বছর তেইশের ওই তরুণী শাদাব-শাহবাজদের প্রতিবেশী। তাঁর দাবি, দীর্ঘদিন ধরেই শাদাব উত্তক্ত করে যাচ্ছেন তাঁকে। বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বার বার হুমকি দিয়েছেন।ওই তরুণী সোমবার বলেন, ‘‘তিন বছর ধরে উত্ত্যক্ত করছে শাদাব।”

তাঁর অভিযোগ, অনেক দিন ধরেই তাঁকে বিয়ের প্রস্তাব দিচ্ছিলেন ওই যুবক। শাদাব কলকাতা স্টেশনে প্রিপেইড ট্যাক্সি বুথের কর্মী। তরুণীর দাবি, তিনি প্রথম দিন থেকেই শাদাবের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। সে কারণেশাদাব এবং তাঁর দাদা শাহবাজ বিভিন্ন সময়ে বাড়িতে এসে হুমকি দিয়েছেন। রাস্তাঘাটেও বিভিন্ন ভাবে হুমকি দেওয়া হয়েছে তাঁকে এবং পরিবারকে।ওই তরুণী বলেন,‘‘আমি বাড়ির একমাত্র উপার্জনকারী। সল্টলেক সেক্টর ফাইভের একটি কলসেন্টারে চাকরি করি। দিনের অনেকটা সময় সেখানেই চলে যায়। তাই ঝামেলা বাড়াতে চাইনি। মুখ বুজে ছিলাম।”

Advertisement

আরও পড়ুন: টেলিপাড়ার ভোটে ধাক্কা ‘বিশ্বাস ভাইদের’, হারল বিজেপি-ও​

কিন্তু তাতে হিতে বিপরীত হয় বলেই দাবি ওই তরুণীর। উল্টোডাঙা মহিলা থানায় করা অভিযোগে তিনি জানিয়েছেন, এ বছর জানুয়ারি মাস থেকে পরিস্থিতি দুঃসহ হয়ে ওঠে। শাদাব তাঁর ছবি এবং ফোন নম্বর নিজের হোয়াটস অ্যাপের স্ট্যাটাসে দিয়ে অশালীন কথা লেখেন। এখানেই শেষ নয়। ওই তরুণীর কথায়, ‘‘শাদাবের দাদা শাহবাজ আমাকে হুমকি দিয়ে,গালিগালাজ করে একটি ভিডিয়ো তৈরি করেন। আমার মাকে খুন করার হুমকি দিয়ে অডিয়ো মেসেজও পাঠান আমাকে।”

তরুণীর অভিযোগ, গোটা জানুয়ারি মাস ধরে এ ধরনের একের পর এক ঘটনা ঘটতে থাকায় তিনি বাধ্য হয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন। তাঁর দাবি, এর আগে ফোনে বিভিন্ন সময়ে শাহবাজ তাঁকে হুমকি দিয়েছেন এবং ভাইয়ের বিয়ের প্রস্তাব মেনে নিতে বলেছেন। সেই সময়েশাহবাজ নিজেকে রাজ্যসভার তৃণমূলসাংসদ শান্তনু সেন এবং বিধায়ক মালা সাহার ঘনিষ্ঠ বলে দাবি করেছেন। তরুণী অভিযোগ করেন, ‘‘শাহবাজ হুমকি দিয়ে বলেছেন যে, পুলিশ তাঁর কিস্যু করতে পারবে না।’’তরুণীর দাবি, ‘‘বাস্তবেও তাই হয়েছে।’’

গত ৪ ফেব্রুয়ারি উল্টোডাঙা মহিলা থানায় অভিযোগ জানান ওই তরুণী। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৫৪ডি, ৫০৯ এবং ১২০ বি ধারায় মামলা শুরু করে পুলিশ। পরের দিন অর্থাৎ ৫ ফেব্রুয়ারি তিনি শিয়ালদহ আদালতে বিচারকের সামনে গোপন জবানবন্দিও দেন। অভিযোগ, তার পরেও পুলিশ কোনও ব্যাবস্থা নেয়নি। গ্রেফতার হননি অভিযুক্তরাও। ওই তরুণীর এখন আতঙ্ক, যে কোনও সময় রাস্তায় বা বাড়িতে তাঁর উপর হামলা চালাতে পারেন দুই ভাই।

আরও পড়ুন: মাটি খুঁড়ে উদ্ধার ৫০ লাখের চোরাই গয়না, খড়ের চালে লাখ টাকা!​

সাংসদ শান্তনু সেনকে এ বিষয়টি জানানো হলে তিনি বলেন,‘‘শাহবাজ ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ব্লক তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি। তাঁর বাবা সারওয়ার খানও ওই এলাকায় আমাদের দলের বর্ষীয়ান নেতা। আমি রাজনীতির সূত্রে তাঁদের চিনি। তবে ব্যক্তিগত জীবনে তিনি কী করেছেন তা আমি জানি না। তা দেখার দায়িত্ব প্রশাসনের। যদি অভিযোগ সত্যি হয়, তবে আইন আইনের পথে চলবে।”

পুলিশ তাহলে কেন কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না? এ বিষয়েজানতে কলকাতা পুলিশের ডিসি (পূর্ব শহরতলি) অজয় প্রসাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। হোয়াট্‌সঅ্যাপে তাঁকে ঘটনার কথা জানানো হয়। তবে এই খবর প্রকাশিত হওয়া পর্যন্ত তাঁর কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement