Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Refuge Islands In Kolkata

দুর্ঘটনা কমাতে আরও পথচারী দ্বীপ, শুরু হল কাজ

কলকাতায় বছরভর পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমানো গেলেও পথচারীদের মৃত্যু এবং আহত হওয়ার ঘটনায় তেমন ছেদ টানা যায়নি। যা নিয়ে একাধিক বার উদ্বেগের সুর শোনা গিয়েছে কলকাতার নগরপাল বিনীত গোয়েলের গলায়।

An image of Vineet Goyal

কলকাতার নগরপাল বিনীত গোয়েল। —ফাইল চিত্র।

চন্দন বিশ্বাস
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ ডিসেম্বর ২০২৩ ০৮:৪৩
Share: Save:

বেহালায় পথ দুর্ঘটনায় এক খুদে স্কুলপড়ুয়ার মৃত্যুর পরেই পথচারীদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। বিষয়টি বিবেচনা করে তড়িঘড়ি শহরের ব্যস্ত রাস্তার মাঝে ‘রেফিউজ আইল্যান্ড’ বা পথচারী দ্বীপ বাড়ানোর ভাবনা-চিন্তা শুরু করে লালবাজার। সেই মতো কলকাতা পুরসভাকে চিঠিও পাঠানো হয়েছিল। অবশেষে রবিবার সেই কাজ শুরু হল বলে পুরসভা সূত্রের খবর। এ দিন শ্যামবাজার সংলগ্ন একাধিক জায়গায় ওই কাজ শুরু হয়।

কলকাতায় বছরভর পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমানো গেলেও পথচারীদের মৃত্যু এবং আহত হওয়ার ঘটনায় তেমন ছেদ টানা যায়নি। যা নিয়ে একাধিক বার উদ্বেগের সুর শোনা গিয়েছে কলকাতার নগরপাল বিনীত গোয়েলের গলায়। পথচারীদের নিরাপত্তা বাড়াতে প্রতিটি ট্র্যাফিক গার্ডকে নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। যদিও গত অগস্ট মাসে বেহালার দুর্ঘটনায় পড়ুয়ার মৃত্যুর পরে পথচারীদের নিরাপত্তা নিয়ে ফের এক বার প্রশ্ন উঠেছিল। তার পরেই পথচারীদের নিরাপদে রাস্তা পেরোনো নিশ্চিত করতে শহর জুড়ে ৭৫টিরও বেশি জায়গায় পথচারী দ্বীপ তৈরির ভাবনা-চিন্তা শুরু করে লালবাজার। প্রাথমিক ভাবে যে সব স্কুল বা জনবহুল স্থানের কাছে খুব বেশি ক্রসওভার বা রাস্তা পারাপারের দরকার রয়েছে, সেই সব জায়গা চিহ্নিত করে কলকাতা পুরসভাকে তালিকা পাঠায় কলকাতা পুলিশ। দ্রুত কাজ শেষ করার কথাও বলা হয়। অবশেষে সেই কাজ শুরু হল।

কিন্তু কী এই রেফিউজ আইল্যান্ড বা পথচারী দ্বীপ? রাস্তা পারাপারের সময়ে সিগন্যাল হঠাৎ লাল হয়ে গেলে অনেক সময়েই পথচারীরা তাড়াহুড়ো করে পেরোতে যান। সেই সময়ে তাঁরা যাতে দুই রাস্তার সংযোগস্থলে নির্দিষ্ট জায়গায় দাঁড়াতে পারেন, তার জন্যই তৈরি করা হয় এই রেফিউজ আইল্যান্ড।

কলকাতা পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তর-দক্ষিণ মিলিয়ে একাধিক রাস্তায় এই রেফিউজ আইল্যান্ড তৈরি করা হবে। উত্তরের বাগবাজার স্ট্রিট ও গিরিশ অ্যাভিনিউয়ের সংযোগস্থল, বিধান সরণি ও বাগবাজার স্ট্রিটের সংযোগস্থল, গিরিশ অ্যাভিনিউ এবং চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউয়ের সংযোগস্থল-সহ প্রায় ১৭টি জায়গায় এই কাজ হবে। দক্ষিণ কলকাতাতেও এই কাজ হবে বলে কলকাতা পুরসভা সূত্রের খবর। পুরসভার এক কর্তা বলেন, ‘‘পুলিশের তরফে জরুরি ভিত্তিতে বেশ কিছু জায়গার নাম দেওয়া হয়েছিল। পদ্ধতি মেনে দরপত্র ডেকে আনুষঙ্গিক সব কাজ শেষ হয়। তার পরেই মূল কাজে হাত দেওয়া হয়েছে।’’

বস্তুত, কম সময়ের মধ্যে শহরের একাধিক বড় রাস্তা পার হতে হয় বলে পথচারীদের অভিযোগ বহু দিনের। নির্দিষ্ট সময়ে তাড়াহুড়ো করে রাস্তা পেরোতে গিয়ে বহু দুর্ঘটনা ঘটে বলেও অভিযোগ। পথচারী দ্বীপের সংখ্যা বাড়লে সেই সংখ্যা কমবে বলে আশাবাদী পুলিশকর্তারা। কলকাতা পুলিশ সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে শহরে ২০টি-র বেশি জায়গায় এই ধরনের আইল্যান্ড বা পথচারী দ্বীপ রয়েছে। যেগুলির মধ্যে পার্ক স্ট্রিট, ডোরিনা ক্রসিং ও হেস্টিংস মোড়ের মতো ব্যস্ততম মোড় অন্যতম।

এক পুলিশকর্তা বলেন, ‘‘এমনিতেই দুর্ঘটনা কমাতে প্রতি বছর নানা ব্যবস্থা নেওয়া হয়। বুম ব্যারিয়ার-সহ ফুট ওভারব্রিজ রয়েছে একাধিক জায়গায়। রেফিউজ অ্যাইল্যান্ড বাড়লে দুর্ঘটনা আরও কমবে বলে আশা করা হচ্ছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

pedestrians Kolkata Traffic Vineet Goyal Lalbazar
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE