Advertisement
০৫ ডিসেম্বর ২০২২

মেট্রোর কাজে ঘরহারা, ভরসা এ বার লটারি

গত ছ’ বছর ধরে মাত্র কয়েক মিটার জমি জটে ঝুলে ছিল নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বর মেট্রো সম্প্রসারণের কাজ।

ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০১৭ ০০:০০
Share: Save:

জট কেটেছিল আগেই। এ বার কাজ শুরুর অপেক্ষা।

Advertisement

কামারহাটির ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডের রাজীব নগরে রেলের জমির দখলদারদের পুনর্বাসনের কাজ শুরু করছে রাজ্য সরকার। প্রাথমিক পর্যায়ে আজ, শনিবার ৫০টি পরিবারের হাতে বিকল্প ঘরের চাবি তুলে দেওয়া হবে। তবে পুরো পক্রিয়াটিই লটারির মাধ্যমে হবে বলে পুরসভা সূত্রে খবর।

গত ছ’ বছর ধরে মাত্র কয়েক মিটার জমি জটে ঝুলে ছিল নোয়াপাড়া থেকে দক্ষিণেশ্বর মেট্রো সম্প্রসারণের কাজ। এক দিকে বরাহনগর আরেক দিকে কামারহাটি, এই দুই পুরসভার এলাকা মিলিয়ে ৬০০ মিটার ফাঁকা পাচ্ছিলেন না মেট্রো কর্তৃপক্ষ। তবে আগেই বরাহনগর পুরসভার ২৫০ মিটার অংশের দখলদারদের বিকল্প বাসস্থানের ব্যবস্থা করে দিয়ে জমি ফাঁকা করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু সমস্যা ছিল কামারহাটির রাজীব নগর নিয়ে। সেখানে ৩৫০ মিটার অংশে দখলদার
থাকায় থমকে ছিল মেট্রোর কাজ। দীর্ঘ টালবাহানার পরে কয়েক মাস আগে সেই জটিলতা কেটে যায়।

পুরসভা জানিয়েছে, ওই জমিতে ২০২টি পরিবার রয়েছে। তাঁদের পুর্নবাসনে দক্ষিণেশ্বরে কেএমডিএ-র একটি জমি পায় কামারহাটি পুরসভা। সেখানে বাসস্থান বানানোর জন্য খরচ ধরা হয় প্রায় ৬ কোটি টাকা। পুরসভার চেয়ারম্যান গোপাল সাহা বলেন, ‘‘প্রাথমিক পর্যায়ে ৫০টি বাড়ি তৈরি হয়ে গিয়েছে। পরের ধাপে বাকি বাড়িও বানানো হবে।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.