Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

নিয়োগ নিয়ে আজ কথা নবগঠিত মেন্টর গ্রুপে

পুরনোদের অনেকেই এখন আর সদস্যপদে নেই। অদলবদলের পরে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের নবগঠিত মেন্টর গ্রুপ আজ, বৃহস্পতিবার প্রথম বৈঠকে বসতে চলেছে। ব

সাবেরী প্রামাণিক
১৬ এপ্রিল ২০১৫ ০২:৫২
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

পুরনোদের অনেকেই এখন আর সদস্যপদে নেই। অদলবদলের পরে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের নবগঠিত মেন্টর গ্রুপ আজ, বৃহস্পতিবার প্রথম বৈঠকে বসতে চলেছে। বছর দুয়েক বাদে আলোচনার টেবিলে বসছে ওই উপদেষ্টা গোষ্ঠী। উদ্দেশ্য মূলত শিক্ষক বাছাইয়ের যথাযত পদ্ধতি নির্ধারণ। পরিকাঠামো উন্নয়নের পথ সন্ধান। আর উন্নয়নের রূপরেখা স্থির করা।

কেউ গিয়েছেন। কেউ এসেছেন। তবে প্রথম থেকে মেন্টর গ্রুপের শীর্ষে যিনি ছিলেন, সেই তৃণমূল সাংসদ তথা হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সুগত বসুই নবগঠিত উপদেষ্টা গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান-পদে রয়ে গিয়েছেন। আর আছেন অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রাণিবিদ্যার শিক্ষক হিমাদ্রি পাকড়াশি, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের শিক্ষক নয়নজ্যোত লাহিড়ী, আইআইএম কলকাতার শিক্ষক রাহুল মুখোপাধ্যায় এবং হায়দরাবাদের চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডোরাইরজন বালসুব্রহ্মণ্যম। মেন্টর গ্রুপের উপদেষ্টা, অর্থাৎ উপদেষ্টাদেরও উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন।

অন্যেরা প্রথম পর্যায়ে মেন্টর গ্রুপে থাকলেও বালসুব্রহ্মণ্যম নতুন সদস্য। মেন্টর গ্রুপে তাঁর অন্তর্ভুক্তির ব্যাখ্যা হিসেবে রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দফতর বলছে, ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে সহায়তা করার জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত নানা ক্ষেত্রের অভিজ্ঞদের যুক্ত করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বালসুব্রহ্মণ্যমকেও নেওয়া হয়েছে সেই লক্ষ্যেই। আগের পর্যায়ের অন্য দুই সদস্য, স্বপন চক্রবর্তী ও সব্যসাচী ভট্টাচার্য এখন প্রেসিডেন্সির ‘ডিস্টিংগুইশ্ড প্রফেসর’ বা বিশিষ্ট অধ্যাপক। পদার্থবিদ অশোক সেনও আর মেন্টর গ্রুপের সদস্য নন।

Advertisement

নবগঠিত মেন্টর গ্রুপের প্রথম দিনের বৈঠকে আলোচ্য কী?

সরাসরি জবাব দিতে চাননি চেয়ারম্যান সুগতবাবু। তিনি জানান, লোকচক্ষুর আড়ালে নিভৃতে আলোচনা চান তাঁরা। তাই এই বিষয়ে সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খুলতে চাইছেন না। চেয়ারম্যান মুখ না-খুললেও মেন্টর গ্রুপ সূত্রের খবর, আজকের বৈঠকে মূলত তিনটি বিষয়ে আলোচনা হওয়ার কথা।

• শিক্ষক নিয়োগ। প্রেসিডেন্সিকে বিশ্ব মানে উন্নীত করার জন্য নতুন উজ্জ্বল শিক্ষক নিয়োগের সঙ্গে সঙ্গে দেশ-বিদেশের নামী অধ্যাপকদের টেনে আনার কথা বলা হচ্ছে দীর্ঘদিন ধরে। কিন্তু পরিকাঠামোয় ঘাটতি এবং আর্থিক কারণে বিভিন্ন বিভাগের বেশ কিছু শিক্ষকই ওই প্রতিষ্ঠান ছেড়ে চলে গিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩০৬টির মধ্যে ১৪৪টি শিক্ষক-পদই খালি বলে প্রেসিডেন্সি সূত্রের খবর। শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য সম্প্রতি আবেদনপত্র চেয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়-কর্তৃপক্ষ। ঠিক কোন পদ্ধতিতে ফাঁকা পদগুলির জন্য যোগ্য শিক্ষক নিয়োগ বাছাই করা যেতে পারে, মেন্টর গ্রুপের এ দিনের বৈঠকে সেটি বিশদ ভাবে আলোচিত হওয়ার কথা। শিক্ষক বেছে নেওয়ার দায়িত্ব কোন কোন বিশেষজ্ঞকে দেওয়া যায়, তাঁদের নাম স্থির করার ব্যাপারেও মত বিনিময় করবেন মেন্টরেরা।

• প্রেসিডেন্সি ছেড়ে যাওয়ার কারণ হিসেবে কিছু শিক্ষক বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকাঠামোর খামতি নিয়ে অভিযোগ করেছিলেন। কী ভাবে পরিকাঠামোর উন্নয়নের ঘটানো যায়, আজকের বৈঠকে সেটি মেন্টর গ্রুপের সদস্যদের অন্যতম আলোচ্য। বিশেষত বিজ্ঞানের বিভিন্ন বিষয়ের গবেষণার জন্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো আছে কি না, না-থাকলে কী ভাবে তার ব্যবস্থা করা যায়— আলোচ্যসূচিতে সেগুলোও আছে বলে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর।

• বিশ্ববিদ্যালয়ের দৈনন্দিন কাজকর্ম পরিচালনা এবং সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার উপাচার্য-সহ কর্তাদের উপরেই ন্যস্ত। তাই মেন্টর গ্রুপ সেই ব্যাপারে কোনও আলোচনায় যাবে না। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে সুদূরপ্রসারী কী কী পরিকল্পনা করা যায়, তা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হওয়ার কথা। ২০১৭-র মধ্যে প্রেসিডেন্সিকে বিশ্ব মানের প্রতিষ্ঠান করে তোলার যে-প্রতিশ্রুতি মেন্টর গ্রুপের জন্মলগ্নে দেওয়া হয়েছিল, তাকে কী ভাবে বাস্তবায়িত করা যায়, এ দিনের বৈঠকে মত বিনিময়ের মাধ্যমে সেই পথ খোঁজা হবে।

উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়াকে আজকের বৈঠকে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে মেন্টর গ্রুপ সূত্রের খবর। তবে বুধবার পর্যন্ত এই বিষয়ে তাঁর কিছু জানা নেই বলে অনুরাধাদেবী জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‘ওঁরা উপস্থিত থাকতে বললে নিশ্চয়ই যাব।’’ তবে কাল, শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের গভর্নিং বোর্ডের বৈঠক আছে। সেখানে ভর্তি প্রক্রিয়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা হওয়ার কথা। প্রেসিডেন্সি-কর্তৃপক্ষের নজর আপাতত সে-দিকেই।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement