Advertisement
০৪ ডিসেম্বর ২০২২
Kashmiri

বিদ্বেষ থেকে নয়, ছিনতাই করতেই কাশ্মীরি যুবকের উপর হামলা

শাকুর দাবি করেছিলেন, তিনি কাশ্মীরের বাসিন্দা, সেই কারণেই তাঁর উপর বিদ্বেষ থেকে দুষ্কৃতীরা চড়াও হয়েছে।

আক্রান্ত কাশ্মীরি শালওয়ালা শাকুর আহমেদ শাহ। —নিজস্ব চিত্র।

আক্রান্ত কাশ্মীরি শালওয়ালা শাকুর আহমেদ শাহ। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৭ মার্চ ২০১৯ ১৮:২০
Share: Save:

কোনও বিদ্বেষ থেকে নয়।ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্যেই দুষ্কৃতীরা চড়াও হয়েছিল কাশ্মীরি যুবক শাকুর আহমেদ শাহ-এর উপর। অন্যতম অভিযুক্ত নানা-কে জেরা করে নিশ্চিত তদন্তকারী আধিকারিকরা। ধৃত অভিযুক্তকে জেরা করে তার আরও তিন সঙ্গীর নাম পাওয়া গিয়েছে। তাদের পাকড়াও করার চেষ্টা করছেন কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ এবং রেল পুলিশের আধিকারিকরা।

Advertisement

পেশায় পশমিনা শালের কারবারি শাকুর কাশ্মীরের বদগামের বাসিন্দা। তিনি ব্যাবসার জন্য কলকাতায় সন্তোষপুরে বাড়ি ভাড়া করে থাকেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় কড়েয়া এলাকায় শাকুর তাঁর মহাজনের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। তিনি পুলিশকে জানিয়েছেন, পার্ক সার্কাস স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় কয়েকজন পরিচিতের সঙ্গে মদ্যপান করছিলেন তিনি। সেই সময় কয়েকজন এসে তাঁর উপর চড়াও হয়ে এবং ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাঁর সঙ্গে থাকা ১ লাখ ৯৫ হাজার টাকা নিয়ে চম্পট দেয়।

শাকুর দাবি করেছিলেন, তিনি কাশ্মীরের বাসিন্দা, সেই কারণেই তাঁর উপর বিদ্বেষ থেকে দুষ্কৃতীরা চড়াও হয়েছে। তিনি প্রথমে কলকাতা পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করতে গেলে, কলকাতা পুলিশ তাঁকে নিয়ে বালিগঞ্জ জিআরপিএসে নিয়ে যান কারণ ঘটনাটি রেল পুলিশের এলাকায় হয়েছে।

আরও পড়ুন: কাশ্মীরি যুবককে কুপিয়ে টাকা লুট পার্ক সার্কাসে​

Advertisement

আরও পড়ুন: শহরতলিতে শিলাবৃষ্টি, দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির ইঙ্গিত আবহাওয়া দফতরের​

রেল পুলিশের পাশাপাশি তদন্ত শুরু করে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের ডাকাতি দমন শাখাও। বেনিয়াপুকুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় নানা নামে ওই দুষ্কৃতীকে। তাকে জেরা করে জানা যায় তার সঙ্গে আরও তিনজন ছিল। এক তদন্তকারী আধিকারিক বলেন, ওরা সবাই ওই এলাকার দাগি ছিনতাইবাজ। পুলিশ সূত্রে খবর, জেরায় জানা গিয়েছে অভিযুক্তরা আগে থেকে জানত না যে শাকুরের কাছে এত টাকা আছে। অভিযুক্তরা শুনশাল এলাকায় শাকুরকে বসে থাকতে দেখে চড়াও হয়। ছিনতাই ছাড়া অন্য কোনও উদ্দেশ্য ছিল না বলে দাবি ধৃতদের। শিয়ালদহ রেল পুলিশের সুপার অশেষ বিশ্বাস বলেন,“ আমরা আরও কয়েকজনের খোঁজ পেয়েছি। তাঁদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।”

(শহরের সেরা খবর, শহরের ব্রেকিং নিউজ জানতে এবং নিজেদের আপডেটেড রাখতে আমাদের কলকাতা বিভাগ পড়ুন।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.