×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

‘হেনস্থা’র প্রতিবাদ করে মার খেলেন বৃদ্ধ বাবা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ০৩:২৯
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

মেয়েকে যৌন হেনস্থার প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধ বাবাকে মেরে দাঁত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠল। বৃদ্ধকে বাঁচাতে পরিবারের লোকজন ছুটে এলে তাঁদের উপরেও চড়াও হয় অভিযুক্তেরা। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে নিউ আলিপুর থানার মাঝেরহাট কলোনিতে।

তরুণীর আরও অভিযোগ, ঘটনার রাতে থানায় সব জানাতে গেলে পুলিশ প্রথমে অভিযোগ নেয়নি। পরে সোমবার সকালে ফের থানায় গিয়ে তিনি অভিযোগ দায়ের করেন। যদিও পুলিশের তরফে অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

তরুণী পুলিশকে জানিয়েছেন, পিসেমশাইয়ের শরীর খারাপ শুনে তিনি রবিবার রাতে শ্বশুরবাড়ি থেকে মাঝেরহাট কলোনিতে এসেছিলেন। রাতে খাওয়াদাওয়ার পরে রাস্তায় হাঁটছিলেন তিনি। অভিযোগ, তিন-চার যুবক সেখান দিয়ে যাওয়ার সময়ে তাঁকে কটূক্তি করে। তরুণী প্রতিবাদ করলে ওই যুবকেরা তাঁর হাত ধরে টানাটানি শুরু করে। গায়েও হাত দেয়।

Advertisement

মেয়ের চিৎকার শুনে বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন বৃদ্ধ বাবা। অভিযোগ, ওই যুবকেরা তখন তাঁর উপরে চড়াও হয় এবং মারধর করে। মারের চোটে দাঁত ভেঙে যায় বৃদ্ধের। এরই মধ্যে ছুটে আসেন তরুণীর দাদা ও পড়শিরা। তাঁদেরও মারধর করে পালায় অভিযুক্তেরা। তরুণীর দাবি, ওই যুবকেরা সকলেই মত্ত অবস্থায় ছিল।

রাতেই পরিবারের লোকজনকে নিয়ে নিউ আলিপুর থানায় যান তরুণী। কিন্তু অভিযোগ, পুলিশ তখন তাঁর অভিযোগ নেয়নি। এ দিন সকালে ফের থানায় গেলে পুলিশ অভিযোগ গ্রহণ করে। সোমবার রাত পর্যন্ত এই ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি। তবে তরুণীর পরিজনেদের দাবি, অভিযুক্তেরা সকলেই স্থানীয় ৮১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। পুলিশ জানিয়েছে, তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

Advertisement