Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ধুলোয় ঢাকা রাস্তা, প্রতিবাদে অবরোধ

নিজস্ব সংবাদদাতা
০৬ নভেম্বর ২০১৯ ০৩:৩৯
Save
Something isn't right! Please refresh.
বেহাল: এ ভাবেই ধুলোয় ভরে থাকে বেড়াচাঁপা-হাড়োয়া রোড (বাঁ দিকে)। ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা মঙ্গলবার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ করেন। ছবি: সজলকুমার চট্টোপাধ্যায়

বেহাল: এ ভাবেই ধুলোয় ভরে থাকে বেড়াচাঁপা-হাড়োয়া রোড (বাঁ দিকে)। ক্ষুব্ধ বাসিন্দারা মঙ্গলবার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ করেন। ছবি: সজলকুমার চট্টোপাধ্যায়

Popup Close

রাস্তা বেহাল হয়ে পড়ে ছিল দীর্ঘ তিন বছর। সম্প্রতি পূর্ত দফতর জানিয়েছিল, নতুন রাস্তা তৈরি করা হবে। সেই কাজ তো শুরু হয়ইনি। উল্টে এক দিকে চলছে ভাঙা রাস্তায় তাপ্পি মারার কাজ, অন্য দিকে ওই রাস্তার মধ্যেই বসানো হচ্ছে বিদ্যুতের খুঁটি। যার নিট ফল, ধুলোয় ঢেকেছে চারপাশ। এ সবের প্রতিবাদে মঙ্গলবার বেঞ্চ পেতে পথ অবরোধ করলেন স্থানীয় মানুষজন। এর জেরে বেশ কিছু ক্ষণ যাতায়াত বন্ধ হয়ে যায় বেড়াচাঁপা-হাড়োয়া রোডে। যানজটের কবলে পড়ে বাদুড়িয়া, দেগঙ্গা থেকে রাজারহাট, নিউ টাউনমুখী যানবাহন।

দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থায় থাকা ওই রাস্তাটি নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের বিস্তর অভিযোগের পরে সেটি সম্প্রসারণ করার কথা জানিয়েছিল উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পূর্ত দফতর। এই কাজে মঞ্জুরও হয় ৩০ কোটি টাকা। পূর্ত দফতর জানিয়েছিল, সাড়ে দশ কিলোমিটার রাস্তাটি ২৮ ফুট চওড়া করা হবে। রাস্তার দু’পাশে থাকবে নিকাশি নালা। এই কাজের জন্য কেটে ফেলা হয় দু’ধারের বেশ কিছু প্রাচীন গাছও।

কিন্তু এত কিছুর পরেও রাস্তা চওড়া করার কাজ শুরু না হওয়ায় এ দিন অবরোধে শামিল হন বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ দু’টি। প্রথমত, খানা-খন্দে ভরা রাস্তায় পাথর ফেলে তাপ্পি মারা চলছে। যার জেরে ধুলোয় ঢেকেছে রাস্তা। এর উপরে গাড়ি চলাচলের জন্য সেই ধুলো প্রায় কুয়াশার আকার নিয়েছে। সাইফুল ইসলাম নামে এক বাসিন্দা বলেন, ‘‘ধুলোর চোটে শ্বাস নিতে পারছেন না পথচলতি মানুষ থেকে আশপাশের দোকানিরা।’’

Advertisement

দ্বিতীয় অভিযোগ, রাস্তার এক দিক দিয়ে গিয়েছে হাইটেনশন বিদ্যুতের তার। অন্য দিকে নতুন করে বসানো হচ্ছে বিদ্যুতের খুঁটি। হাইটেনশন তার এবং বিদ্যুতের খুঁটির মধ্যে দূরত্ব ২০ ফুট। এলাকাবাসীর প্রশ্ন, রাস্তা যদি ২৮ ফুট চওড়া হবে, তা হলে রাস্তার মধ্যে কী ভাবে ২০ ফুটের ব্যবধানে খুঁটি পোঁতা হচ্ছে? রাস্তা সম্প্রসারণের সময়ে ফের খুঁটিগুলি সরাতে হলে তো খরচ বাড়বে।

এ বিষয়ে রাস্তা সারাইয়ের অনুমোদন পাওয়া ঠিকাদার সংস্থার তরফে রেজানুর বৈদ্য বলেন, ‘‘রাস্তা থেকে অন্তত সাত ফুট দূরে বিদ্যুতের খুঁটি বসানোর কথা। এ ভাবে বসানোর ফলে সমস্যা থেকেই যাচ্ছে।’’ যদিও জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ নারায়ণ গোস্বামী বলেন, ‘‘রাস্তা সম্প্রসারণে দরপত্রের কাজ এখনও শেষ হয়নি। তবে বিদ্যুতের খুঁটি পোঁতা ও ধুলোর সমস্যার সমাধান শীঘ্রই করা হবে।’’



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement