Advertisement
১৯ জুন ২০২৪
Rabindra Sarobar Lake

রবীন্দ্র সরোবরে যজ্ঞ করতে বাধা নেই, পরিবেশ আদালতের নির্দেশে বিতর্ক 

পরিবেশকর্মী সুভাষ দত্তের মামলার পরিপ্রেক্ষিতে রবীন্দ্র সরোবরে পুজো, পিকনিক বা কোনও ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠান পুরোপুরি নিষিদ্ধ করার রায় দিয়েছিল পরিবেশ আদালত।

Rabindra Sarobar

রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজো নিষিদ্ধ হলেও সেখানে যজ্ঞ করতে অনুমতি দিল পরিবেশ আদালত। ফাইল চিত্র।

শেষ আপডেট: ২৬ মে ২০২৩ ০৮:১২
Share: Save:

রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজো নিষিদ্ধ করেছিল জাতীয় পরিবেশ আদালত। কোনও ভাবেই সেখানে যাতে ছট পুজো না হয়, সেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল রাজ্য সরকারকে। যা নিয়ে একাধিক বার বিতর্কও হয়েছে। আবারও নতুন করে বিতর্কের কেন্দ্রে সেই রবীন্দ্র সরোবর। কারণ, সম্প্রতি দায়ের হওয়া এক মামলার রায়ে পরিবেশ আদালত জানিয়েছে, সরোবরে পুজো বা অন্য কোনও অনুষ্ঠান নিষিদ্ধ হলেও পরিবেশবিধি মান্য করে যজ্ঞ করতে অসুবিধা নেই।

ঘটনাপ্রবাহ বলছে, গত ৩০ এপ্রিল রবীন্দ্র সরোবরে যজ্ঞ করার অনুমতি চেয়ে সরোবর দেখাশোনার দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা ‘কলকাতা মেট্রোপলিটন ডেভেলপমেন্ট অথরিটি’-র কাছে আবেদন করেছিল এক স্বেচ্ছাসবী সংস্থা। কিন্তু সেই আবেদন নাকচ হয়ে যায়। তার পরেই সংশ্লিষ্ট স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা কিসের ভিত্তিতে রবীন্দ্র সরোবরে যজ্ঞ করা যাবে না, সেই প্রশ্ন তুলে চলতি মাসে পরিবেশ আদালতে মামলা দায়ের করে। নিজেদের যুক্তির পক্ষে সংস্থাটি ‘ন্যাশনাল বটানিক্যাল রিসার্চ ইনস্টিটিউট’, ‘জার্নাল অব এপিলেপ্সি রিসার্চ’-এর গবেষণাপত্রের রিপোর্ট পেশ করে। সেই রিপোর্টগুলিতে যজ্ঞের ধোঁয়া জীবাণুনাশের পাশাপাশি শ্বাসযন্ত্র ভাল রাখতে সাহায্য করে বলে দাবি করা হয়েছে।

যার পরিপ্রেক্ষিতে পরিবেশ আদালত নির্দেশ দেয়, কোনও রকম পুজো, আবর্জনা ফেলা পুরোপুরি নিষিদ্ধ হলেও রবীন্দ্র সরোবরে যজ্ঞ করতে কোনও বাধা নেই। কারণ, যজ্ঞের কারণে লেকের জলের মানের ক্ষতি হয় না। তবে পরিবেশ আদালত সঙ্গে এ-ও জানিয়েছে, যদি এই রায়ে পরিবেশবিধি লঙ্ঘন হয়েছে বলে কেউ মনে করেন, তা হলে তিনি বা তাঁরা আদালতে আবেদন জানাতেই পারেন।

প্রসঙ্গত, পরিবেশকর্মী সুভাষ দত্তের মামলার পরিপ্রেক্ষিতে রবীন্দ্র সরোবরে পুজো, পিকনিক বা কোনও ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠান পুরোপুরি নিষিদ্ধ করার রায় দিয়েছিল পরিবেশ আদালত। তিনি জানাচ্ছেন, ২০১৭ সালে পরিবেশ আদালতের নির্দেশে গঠিত ২০ জন সদস্যের এক বিশেষজ্ঞ কমিটি ২৮৫ পাতার এক রিপোর্ট দাখিল করেছিল। সেই রিপোর্টের উপরে ভিত্তি করেই সরোবরে ছট পুজো-সহ কোনও ধরনের পুজো, অনুষ্ঠানের উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল আদালত। সুভাষ দত্তের বক্তব্য, ‘‘রবীন্দ্র সরোবরের দূষণ নিয়ে সব মিল‌িয়ে প্রায় আড়াই হাজার পাতার নথি রয়েছে। তার পরেও সেখানে যজ্ঞের আবেদন কেউ করে কী ভাবে? পরিবেশ আদালতের এই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করব।’’

যে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এই মামলা করেছে, তার সভাপতি পরমেশ্বের শাহ-র অবশ্য বক্তব্য, সরোবরে তাঁরা যজ্ঞ করবেনই, এমন কোনও নিশ্চয়তা নেই। কিন্তু যে যুক্তিতে তাঁদের যজ্ঞের আবেদন খারিজ করা হয়েছিল, তা যে ঠিক নয়, তা প্রমাণ করতেই এই মামলা। তাঁর কথায়, ‘‘সমস্ত রকম পুজো রবীন্দ্র সরোবরে নিষিদ্ধ তা আমরা জানি। কিন্তু যজ্ঞের ধোঁয়ায় পরিবেশের কোনও ক্ষতি হয় না। বরং তা পরিবেশবান্ধব। এটা প্রমাণ করার জন্যই মামলা করেছি। এই মুহূর্তে সেখানে যজ্ঞ করার কোনও কর্মসূচি আমাদের নেই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Rabindra Sarobar Lake National Green Tribunal NGT
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE