Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
TMC vs. BJP

অমিত শাহের সভার আগে তুঙ্গে শাসক-বিরোধী তরজা, মঙ্গলে বিরোধীদের কক্ষত্যাগ, বুধে শাসকের কালো পোশাক

বুধবার ধর্মতলায় বিজেপির সভামঞ্চে থাকার কথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। তারই প্রতিবাদে বুধবার কালো পোশাক পরে কেন্দ্রীয় বঞ্চনার অভিযোগ তুলে ধরতে চায় তৃণমূল।

Image of the BJP MLAs

বিধানসভার অধিবেশন থেকে ওয়াকআউট বিজেপি বিধায়কদের। — নিজস্ব চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০২৩ ১২:৩৮
Share: Save:

বুধবার কলকাতার ধর্মতলায় বঙ্গ বিজেপির সমাবেশে হাজির থাকার কথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। তার প্রতিবাদে বুধবার কালো পোশাক পরে বিধানসভায় আসার সিদ্ধান্ত তৃণমূল বিধায়কদের। কেন্দ্রীয় বঞ্চনার প্রতিবাদ জানাতেই পোশাকের এমন রং নির্বাচন বলে তৃণমূল সূত্রে খবর। কটাক্ষ করতে দেরি করেনি বিজেপি।

ধর্মতলায় ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে বুধবার বিজেপির প্রকাশ্য জনসভা। তাতে হাজির থাকার কথা রয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর। ২১ জুলাই তৃণমূল সাধারণত যেখানে সভা করে, এ বার সেখানেই পাল্টা সভা করে তৃণমূলকে জবাব দেওয়ার চ্যালেঞ্জ নিয়েছে বিজেপি। সেই সভা ঘিরে পদ্ম শিবির চালাচ্ছে শেষবেলার প্রচার। পথে নেমে সভা সফল করার চেষ্টা চালাচ্ছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার থেকে শুরু করে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তারই পাল্টা হিসাবে কালো পোশাক পরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তৃণমূল বিধায়করা। তাঁদের কথায়, শাহের সামনে কালো পোশাক পরে তৃণমূল বিধায়করা কেন্দ্রীয় বঞ্চনার বিষয়টিই তুলে ধরবেন। তৃণমূলের পরিষদীয় দল স্থির করেছে, মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশন শেষে তৃণমূল বিধায়করা কেন্দ্রীয় বঞ্চনার অভিযোগে বি আর অম্বেডকরের মূর্তির সামনে ধর্না দেবেন। তার পর দিন অর্থাৎ বুধবার, শাহের সভার দিন কালো পোশাক পরে প্রতিবাদ দেখাবেন। যদিও তৃণমূলের পরিষদীয় দলের কালো পোশাক পরাকে কটাক্ষ করেছেন বিরোধী দলনেতা। শুভেন্দু বলেন, ‘‘কালো পোশাক পরে কাকে বিক্ষোভ দেখাবেন? কালো পোশাক পরে কি নিজেদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাবেন? কারণ, কেন্দ্রীয় সরকারের কোনও প্রতিনিধি তো আর থাকবে না!”

মঙ্গলবার বিধানসভায় দুর্নীতি নিয়ে আলোচনা চেয়ে মুলতুবি প্রস্তাব আনে বিজেপি। সেই প্রস্তাবটি পাঠ করার অনুমতি দেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি বিধায়ক মনোজ ওঁরাও প্রস্তাব পাঠ করেন। কিন্তু প্রস্তাবের সম্পাদিত ভাগটি কেবল পাঠ করার অনুমতি দিয়েছিলেন স্পিকার। বিজেপি বিধায়ক আসল প্রস্তাবটি পাঠ করতে থাকেন। স্পিকার বিষয়টি উল্লেখ করে প্রস্তাব পাঠ করতে দেননি। এতে বিজেপি বিধায়করা বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। বিধানসভায় চলতে থাকে জোর স্লোগান। এর পর প্রতিবাদে অধিবেশন থেকে ওয়াক আউট করেন বিজেপি বিধায়করা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE