Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

BJP: বিজেপি করি বলেই মমতার প্রশাসনিক বৈঠকে ডাকা হয়নি, দাবি বিধায়কের

নিজস্ব সংবাদদাতা
রায়গঞ্জ ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ১৭:০৭
ইংরেজবাজারের বিজেপি বিধায়ক শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী এবং রাজ্যের মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন।

ইংরেজবাজারের বিজেপি বিধায়ক শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী এবং রাজ্যের মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন।
—নিজস্ব চিত্র।

বিধানসভা নির্বাচনের পর এই প্রথম গৌড়বঙ্গ সফরে প্রশাসনিক বৈঠক করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে সে বৈঠকে রাজ্যের প্রধান বিরোধী দলকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলে দাবি করল বিজেপি। রাজ্য সরকারের এই আচরণকে ‘বিমাতৃসুলভ’ আখ্যা দিয়ে নিন্দায় সরব হলেন ইংরেজবাজারের বিজেপি বিধায়ক শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরী। তাঁর দাবি, প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে মালদহবাসীর সমস্যার কথা জানানোর অধিকার থেকে তাঁদের বঞ্চিত করা হচ্ছে। যদিও বৈঠকে বিজেপি-কে ব্রাত্য করে রাখার অভিযোগ নিয়ে মন্তব্য করেননি রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূল বিধায়ক সাবিনা ইয়াসমিন। তাঁর পাল্টা দাবি, আমন্ত্রিতদের তালিকা ঠিক করেছে প্রশাসন। তাই এ নিয়ে তিনি কিছু মন্তব্য করতে পারবেন না।

মঙ্গলবার দুপুরে রায়গঞ্জের কর্ণজোড়ায় প্রশাসনিক বৈঠক করেন মমতা। অভিযোগ, এই বৈঠকে ডাকা হয়নি হবিবপুর কেন্দ্রের জুয়েল মুর্মু বা মালদহের গোপাল সাহা-সহ জেলায় বিজেপি-র চার বিধায়ককে। অথচ চাঁচলের বিধায়ক নীহাররঞ্জন ঘোষ বা মোথাবাড়ির সাবিনা ইয়াসমিন-সহ শাসকদলের আট বিধায়ক ওই বৈঠকে আমন্ত্রিতদের তালিকায় রয়েছেন। এ নিয়ে শ্রীরূপা বলেন, ‘‘মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী আজ (মঙ্গলবার) মালদহ সফর করছেন। তিনি প্রশাসনিক বৈঠক ডেকেছেন। সেখানে নিয়মানুযায়ী সমস্ত সাংসদ-বিধায়কেরা আমন্ত্রণ পান। কিন্তু আমরা যে হেতু বিজেপি পার্টি করি, তাই দুঃখজনক ভাবে বৈঠকে আমাদের ডাকা হয়নি। ফলে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে মালদহবাসীর সমস্যার কথা তুলে ধরতে চাইলেও তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। এটি এলাকার মানুষের প্রতিও বঞ্চনা। কারণ, জনগণ আমাদের নির্বাচিত করেছে। সমস্ত সাংসদ-বিধায়কের মতো বৈঠকে অংশগ্রহণ করা ও জনগণের সমস্যা তুলে ধরার অধিকার রয়েছে আমাদের। সরকারের এই বিমাতৃসুলভ আচরণের আমরা নিন্দা করছি।’’

Advertisement

যদিও শ্রীরূপার দাবি নস্যাৎ করেছেন রাজ্যের সেচ এবং উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন দফতরের প্রতিমন্ত্রী তথা মোথাবাড়ির বিধায়ক সাবিনা ইয়াসমিন। তাঁর পাল্টা দাবি, ‘‘এই বৈঠকে সকলকে প্রশাসনিক স্তর থেকে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে। বৈঠকে কারা ডাক পেয়েছেন বা পাননি, তা বলতে পারব না। শাসক না বিরোধী— কাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে, তা-ও জানি না। বিজেপি-র কাজ শুধু অভিযোগ করা। ওরা শুধু বিরোধিতাই করে। তা নিয়ে আমাদের মাথাব্যথা নেই। দিদি এখানে এসেছেন, তাতে আমরা মালদহবাসীর পক্ষ থেকে খুশি।’’

আরও পড়ুন

Advertisement