Advertisement
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

উগ্রপন্থী গোষ্ঠী নিয়ে সতর্কতা মমতার

মুখ্যমন্ত্রী জানান, ওই গোষ্ঠীর নেতারা বিভিন্ন জায়গার মতো এই এলাকাতেও এসে মিটিং করে সংখ্যালঘুদের বলছে, তাঁরাই নিরাপত্তা দেবেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। —ফাইল চিত্র

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
কোচবিহার শেষ আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০৩:৪৬
Share: Save:

নাম না করে আসাদুদ্দিন ওয়াইসির দল এমআইএম নিয়ে দলীয় কর্মী-সমর্থকদের সতর্ক করলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার কোচবিহার রাজবাড়ি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে কর্মিসভায় ওই বক্তব্য রাখেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, “রাজনীতির মধ্যে আমি দেখেছি হিন্দুদের মধ্যে উগ্রপন্থা আছে, কিছু সংখ্যালঘুদের মধ্যেও উগ্রপন্থা বেরিয়ে গিয়েছে। বিজেপির কাছে এরা টাকা নেয়, সে কথা মাথায় রাখবেন। হায়দরাবাদে তাঁদের বাড়ি। এখানে বাড়ি নয়।’’ মুখ্যমন্ত্রী জানান, ওই গোষ্ঠীর নেতারা বিভিন্ন জায়গার মতো এই এলাকাতেও এসে মিটিং করে সংখ্যালঘুদের বলছে, তাঁরাই নিরাপত্তা দেবেন। মমতা বলেন, ‘‘এই ভুল করতে যাবেন না সংখ্যালঘু ভাই-বোনেরা।” পাশাপাশি তিনি বলেন, “ধর্ম যার যার তার, উৎসব সবার। এটা মাথায় রাখবেন। তা হলে কোনও সমস্যা হবে না।” লোকসভা আসনে উত্তরবঙ্গে বিজেপির জয়ের পরেই রাজনৈতিক পরিবেশ পাল্টাতে শুরু করে। বিশেষ করে সংখ্যালঘুদের ভোট টানতে একাধিক দল মাঠে নামে। এমআইএম’কেও একাধিক মিটিং-মিছিল সংগঠিত করতে দেখা যায়। দলীয় সূত্রের খবর, সংখ্যালঘুরা রাজ্যের শাসক দলের সঙ্গেই রয়েছেন বলে তৃণমূল নেতাদের দাবি। কিন্তু এমআইএম মাঠে নামায় ওই ভোট ব্যাঙ্কে থাবা পড়তে পারে বলে তৃণমূল নেতাদের আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। তৃণমূলের একটি অংশ জানাচ্ছে, সংখ্যালঘুদের এই গোষ্ঠীটি সক্রিয় হলে আখেরে লাভ হবে বিজেপির। মুখ্যমন্ত্রী সেই ভাবনা মাথায় রেখেই এ দিন নাম না করে এমআইএম প্রসঙ্গ তুলে সতর্ক করেন দলের কর্মী-সমর্থকদের। বিজেপির অবশ্য দাবি, তৃণমূলই রাজনৈতিক অস্থিরতা তৈরি করতে চাইছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.