Advertisement
১৬ জুন ২০২৪

দিঘার পরিবেশ বাঁচাতে লক্ষাধিক নারকেল চারা

দিন কয়েক আগে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সফরে  এসে দিঘায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টার ‘দিঘাশ্রী’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এই সতর্ক বার্তা দিয়ে ঘোষণা করেন, দিঘার পরিবেশ ও সৌন্দর্য রক্ষা করতে হবে।

দিঘার উপকূলে লাগানোর জন্য তৈরি হচ্ছে নারকেল চারা।

দিঘার উপকূলে লাগানোর জন্য তৈরি হচ্ছে নারকেল চারা।

নিজস্ব সংবাদদাতা
তমলুক শেষ আপডেট: ২৬ অগস্ট ২০১৯ ০০:০৩
Share: Save:

সমুদ্র তীরবর্তী এলাকায় পরিবেশ নষ্ট করে কোনও হকার বসতে দেওয়া যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দিন কয়েক আগে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সফরে এসে দিঘায় ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টার ‘দিঘাশ্রী’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এই সতর্ক বার্তা দিয়ে ঘোষণা করেন, দিঘার পরিবেশ ও সৌন্দর্য রক্ষা করতে হবে। সমুদ্রের তীরে যত্রতত্র হকার বসিয়ে বা দোকান করে দিঘার সৌন্দর্য নষ্ট করা যাবে না। পরিবেশ বাঁচাতে দিঘার উপকূল এলাকায় নারকেল গাছ লাগানোর কথাও বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

পর্যটকদের আকর্ষণ করতে দিঘায় সমুদ্রতীর বরাবর ৭ কিলোমিটার দীর্ঘ মেরিন ড্রাইভ, সি-প্লেন নামানো, ই-বাস চালু এবং জগন্নাথঘাটের কাছে পুরীর মন্দিরের আদলে জগন্নাথ মন্দির তৈরির কথা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে পরিবেশ রক্ষায় উপকূল এলাকায় নারকেল গাছ লাগানোর ঘোষণার পরই তৎপরতা শুরু হয়েছে জেলা পরিষদ ও প্রশাসনে। জেলা পরিষদ সূত্রে খবর, সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকা-সহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় নারকেল গাছের চারা-সহ বিভিন্ন ফলের চারা প্রতি বছর বিতরণ করা হয়। চলতি বছরেও জুলাই মাসে অরণ্য সপ্তাহ পালনের সময় কয়েক লক্ষ চারাগাছ বাসিন্দাদের বিনামূল্যে দেওয়া হয়েছে পঞ্চায়েতের মাধ্যমে। এ বার মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশমতো দিঘার সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকায় নারকেল গাছ লাগানোর জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হচ্ছে।

জেলা সভাধিপতি দেবব্রত দাস বলেন, ‘‘জেলায় চলতি বছরেই প্রায় ৩০ লক্ষ চারাগাছ লাগানো হয়েছে। এর মধ্যে এক লক্ষ নারকেলের চারা রয়েছে। পরিবেশ রক্ষায় দিঘা-সহ সংলগ্ন সমুদ্রতীরবর্তী জায়গায় আরও নারকেল চারা লাগানোর ব্যবস্থা হচ্ছে। এর জন্য নারকেল চারা তৈরি করা হবে।’’ জেলা পরিষদের অধীনে থাকা সামগ্রিক অঞ্চল উন্নয়ন পর্ষদ (সিএডিসি) নারকেল গাছের চারা তৈরির সঙ্গে যুক্ত। দিঘার সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকায় আগামী বছর বর্ষায় লাগানোর জন্য অতিরিক্ত এক লক্ষ নারকেল চারা তৈরির প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। পর্ষদের প্রকল্প আধিকারিক উত্তমকুমার লাহা বলেন, ‘‘চলতি বছর এক লক্ষের মতো নারকেল চারা লাগানোর কাজ শেষ পর্যায়ে। নারকেল চারা তৈরি করতে প্রায় একবছর সময় লাগে। তাই আগামী বছর বর্ষায় দিঘা উপকূলবর্তী এলাকার রামনগর-১ ও ২, কাঁথি-১ও ২, খেজুরি-১ও ২ ও নন্দীগ্রাম-১ ব্লকে নারকেল গাছের চারা লাগানোর উপর বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Digha Mamata Banerjee Coconut Saplings
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE