Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বোমায় উড়ল বিজেপির পার্টি অফিস

ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক সন্ত্রাসে একদা উত্তপ্ত নন্দীগ্রাম এখন শান্ত। তবে জেলার পটাশপুর থানা এলাকায় রাজনৈতিক সন্ত্রাস অব্যাহত।

নিজস্ব সংবাদদাতা
পটাশপুর ১০ জুন ২০২১ ০৪:২১
Save
Something isn't right! Please refresh.
মঙ্গলবার রাতে বোমা বিস্ফোরণের পর পার্টি অফিসের অবস্থা।

মঙ্গলবার রাতে বোমা বিস্ফোরণের পর পার্টি অফিসের অবস্থা।
নিজস্ব চিত্র।

Popup Close

দরজা ভেঙে প্রথমে লুটপাট। পরে বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়ে বিজেপির পার্টি অফিস উড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। বিস্ফোরণের তীব্রতায় রাতে এলাকায় কেঁপে ওঠে ঘরবাড়ি। ঘটনাস্থল থেকে প্রায় আশি ফুট দূরে পর্যন্ত ছিটকে যায় টিন ও অ্যাসবেস্টসের টুকরো। অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের পাল্টা দাবি, এলাকায় সন্ত্রাস করতে বিজেপি পার্টি অফিসে বোমা মজুত করেছিল। তা ফেটেই এই ঘটনা।

ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক সন্ত্রাসে একদা উত্তপ্ত নন্দীগ্রাম এখন শান্ত। তবে জেলার পটাশপুর থানা এলাকায় রাজনৈতিক সন্ত্রাস অব্যাহত। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই অভিযোগের আঙুল উঠছে শাসক দলের দিকে। মঙ্গলবার গভীর রাতে বোমা বিস্ফোরণে উড়ে যায় বিজেপির পার্টি অফিস। স্থানীয় সূত্রে খবর, পটাশপুর-১ ‍‍‍ব্লকের নৈপুর পঞ্চায়েতের হরিদাসপুরে পাকা রাস্তার ধারে গত লোকসভা ভোটের পরেই বিজেপি ওই পার্টি অফিস তৈরি করেছিল। বিধানসভা ভোটে এই পার্টি অফিস থেকেই তারা নির্বাচনী কাজ পরিচালনা করে। পার্টি অফিস সংলগ্ন একটি পুকুর একশো দিনের কাজে খনন না করে কয়েক লক্ষ টাকা দুর্নীতির অভিযোগে সরব হয়েছিলেন এলাকার মানুষ। ভোটের পর এলাকা থেকে বিজেপির পার্টি অফিস সরিয়ে নেওয়ার জন্য হুমকি দেওয়া অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সূত্রের খবর মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ হঠাৎ পার্টি অফিসের মধ্যে বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণ এতটাই জোরাল ছিল যে এলাকায় বাড়িঘর কেঁপে ওঠে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন বাসিন্দারা। বুধবার ভোরে পার্টি অফিসের ধূলিসাৎ চেহারা দেখেন তাঁরা।

এ দিন ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেল, বিস্ফোরণের তীব্রতায় পার্টি অফিসের উপর দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে পড়েছে। টিন ও অ্যাসবেস্টসের টুকরো এদিক ওদিক ছড়িয়ে রয়েছে। বিস্ফোরনণ স্থলে দুটি গর্তে পড়ে বারুদ মাখা টিনের অংশবিশেষ। স্থানীয়দের দাবি, দুষ্কৃতীরা পার্টি অফিসের দরজা ভেঙে প্রথমে টিভি ও গুরুত্বপূর্ণ কাগজ লুটপাট করে। তার পরে বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়।

Advertisement

এ দিন সকালে পটাশপুর থানার পুলিশ এসে ঘটনাস্থলে যায়। যে ভাবে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে তা সন্দেহজনক বলে মনে করছে পুলিশ। তাদের দাবি, অনেকটা ল্যান্ডমাইনের কায়দায় বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, বোমাগুলি অফিসে দুটি টিনের জেরিকেনে গর্তের মধ্যে রাখা ছিল। পরে বোমাগুলিকে অনেকটা দূর থেকে তারের সাহায্য চার্জ করা হতে পারে।

স্থানীয় বিজেপি নেতা বিশ্বজিৎ কুলোভি বলেন, ‘‘ভোটের পরে তৃণমূল এই পার্টি অফিস সরিয়ে নিতে হুমকি দিয়েছিল। কাজ না হওয়ায় মঙ্গলবার রাতে দরজা ভেঙে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা পার্টি অফিসে লুটপাট ও বোমা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে।’’ পটাশপুর-১ ব্লক তৃণমূল সভাপতি পীযূষ পন্ডা বলেন, ‘‘তৃণমূল বোমার রাজনীতি করে না। এলাকায় সন্ত্রাস করতে বিজেপির পার্টি অফিসে মজুত করা বোমায় বিস্ফোরণ ঘটেছে। পুলিশকে অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছি।’’ তবে বুধবার বিকেল পর্যন্ত বিজেপির তরফে থানায় কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি বলে পুলিশের দাবি।

এগরা মহকুমা পুলিশ আধিকারিক মহম্মদ বৈদুজামান বলেন, ‘‘ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। কী ভাবে বোমা বিস্ফোরণ হয়েছে তা তদন্ত সাপেক্ষ। বিস্ফোরণ স্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement