Advertisement
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Cyclone Yaas

ইয়াস-এ ক্ষতিগ্রস্তদের আবেদন খতিয়ে দেখার কাজ শুরু করল পশ্চিম মেদিনীপুর প্রশাসন

১৯ জুন থেকে শুরু হয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনের কাজ। রাজ্য সরকারের নির্দিষ্ট পোর্টালে তা নথিভুক্ত করতে হচ্ছে আধিকারিকদের।

চলছে আবেদন খতিয়ে দেখার কাজ

চলছে আবেদন খতিয়ে দেখার কাজ ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
পশ্চিম মেদিনীপুর শেষ আপডেট: ২৩ জুন ২০২১ ১৮:৩৩
Share: Save:

ইয়াস ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা প্রশাসন। জেলার ৭টি ব্লকের ৪৩টি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় দুয়ারে ত্রাণ শিবির করে আবেদন জমা নেওয়ার কাজ শেষ হওয়ার পর এখন চলছে সেই আবেদনগুলি খতিয়ে দেখার কাজ। রাজ্য সরকার ৩০ জুন পর্যন্ত আবেদন খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিলেও জেলা প্রশাসন তার আগেই সেই কাজ শেষ করে দিতে চাইছে বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক রশ্মি কোমল।

Advertisement

১৯ জুন থেকে শুরু হয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনের কাজ। রাজ্য সরকারের নির্দিষ্ট পোর্টালে তা নথিভুক্ত করতে হচ্ছে আধিকারিকদের। জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, প্রায় ৩০ হাজার আবেদন জমা পড়েছে। সেই আবেদনের ভিত্তিতে মঙ্গলবার পর্যন্ত পোর্টালে তথ্য নথিভুক্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার পর্যন্ত আপলোড হয়েছে ১১ হাজার আবেদনের তথ্য। বুধবারও তদন্তে গিয়েছেন আধিকারিকরা।

জেলার দাঁতন ১ ও ২ ব্লক, সবং, কেশিয়ারী, কেশপুর, মোহনপুর এবং দাসপুর ব্লকের ৪৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতের ৮৯টি জায়গায় ক্যাম্প করেছিল জেলা প্রশাসন। ৪৮টি পাকা বাড়ির সম্পূর্ণ, ১২০৩টি আংশিক, ৭৬৩টি কাঁচা বাড়ি সম্পূর্ণ এবং ২০ হাজার ৫০০টি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে আবেদন জমা পড়েছে। সব থেকে বেশি আবেদন জমা পড়েছে সবং ব্লকে।

Advertisement

এই প্রসঙ্গে জেলাশাসক রশ্মি বলেন, ‘‘দুয়ারে ত্রাণ কর্মসূচিতে রাজ্য সরকারের নির্দেশ মেনে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আবেদনগুলি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.