×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মে ২০২১ ই-পেপার

রাজনৈতিক ক্ষমতা দখলেই ‘সন্ত্রস্ত’ পটাশপুর, চলছে ধরপাকড়ও

রাতভর উত্তেজনা, ভোরে রাস্তায় বোমা

নিজস্ব সংবাদদাতা
পটাশপুর ০৬ জানুয়ারি ২০২১ ০৩:২৪
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

শাসকের বদল হলেও বোমা বারুদের রাজনীতির বদল ঘটেনি পটাশপুরে। রাতভর বোমাবাজির ঘটনার ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠলো সাউৎখন্ড। ফাঁকা মাঠ থেকে পুলিশ উদ্ধার করল তাজা বোমা। ভীত-সন্ত্রস্ত এলাকার মানুষ।

নির্বাচন এলেই বোমা বন্দুকের রাজনীতি শুরু হয় পটাশপুরে একটি নির্দিষ্ট এলাকা জুড়ে। বাম থেকে ডান সব রাজনৈতিক দলের আশ্রিত দুষ্কৃতীদের দাপট বেড়ে যাওয়ার নজিরও কম নেই। সামনে ফেল বিধানসভা নির্বাচন। এবারেও সেই কৌশল শুরু হয়েছে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। পটাশপুর-২ ব্লকের তৃণমূল পরিচালিত সাউৎখন্ড গ্রাম পঞ্চায়েত। গ্রাম পঞ্চায়েতে কয়েক মাস আগে শাসক দলের গোষ্ঠীকোন্দলে তৃণমূলের পার্টি অফিসের সামনে বোমাবাজি ও বাইক ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। সোমবার রাত থেকে ফের বোমাবাজিতে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে সাউৎখন্ড গ্রাম পঞ্চায়েতে শুকাখোলা গ্রাম। অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা বিজেপি কর্মীদের বাড়ি লক্ষ্য করে বোমাবাজি করে। মঙ্গলবার সকালে রাস্তার ধারে তাজা বোমা পড়ে থাকতে দেখেন বাসিন্দারা। পরে সিভিক ভলান্টিয়ারা এসে বোমাটি সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয় বাসিন্দারা বাধা দেয় বলে অভিযোগ। পরে পটাশপুর থানার পুলিশ এসে বোমাটি উদ্ধার করে। রাতে এলাকার নিরাপত্তার জন্য পুলিশি টহলদারির দাবি জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

অভিযোগ, গত পঞ্চায়েত ভোটে তৃণমূলের বিরোধী শূন্যের রাজনীতির তথ্যে সন্ত্রাসের কারণে বিরোধীরা বাড়ি ছাড়া হয়। বিরোধী বাম কর্মী-সমর্থকদের উপর অত্যাচার চরমে ওঠে। সরকারি প্রকল্পের সুবিধা থেকে বঞ্চনার অভিযোগ ওঠে। গত লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তায় ভোট হওয়ায় এলাকার মানুষ নির্বিঘ্নে নিজেদের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে কিছুটা সক্ষম হয়েছে। লোকসভা ভোটের পর থেকে এই এলাকায় বিরোধী হিসেবে বিজেপির শক্তি বৃদ্ধি পায়। সম্প্রতি শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগদান করায় আরও শক্তিশালী হয়েছে বিজেপি। শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ তৃণমূল নেতারা এখন এলাকায় পুরোপুরি নিষ্ক্রিয়। তৃণমূল এখন এলাকায় কোণঠাসা হয়ে পড়েছে বলে দাবি রাজনৈতিক মহলের। বিজেপির দাবী তৃণমূল এলাকায় জনসমর্থন হারিয়ে টিকে থাকার লড়াইয়ে বোমা-বারুদ নিয়ে সন্ত্রাসের বাতাবরণ তৈরি করছে। অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের পাল্টা দাবি বিজেপি ক্ষমতা দখলের জন্য সন্ত্রাস করছে।

Advertisement

পটাশপুর-২ ব্লক বিজেপি মধ্যম মণ্ডল সভাপতি সুমিত জানা বলেন, ‘‘তৃণমূল বোমাবাজি করে সন্ত্রাসের রাজনীতি করছে। পুলিশকে জানালেও কাজ হচ্ছে না।’’ পটাশপুর-২ ব্লক তৃণমূল সভাপতি মৃণালকান্তি দাসের কথায়, ‘‘বিজেপি ক্ষমতা দখলের জন্য বোমাবাজি করে সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করছে। পুলিশকে দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানিয়েছি।’’ পটাশপুর থানার পুলিশের দাবি, ঘটনাস্থল থেকে বোমা উদ্ধার হয়েছে। তবে অভিযোগ দায়ের হয়নি। রাতে এলাকায় পুলিশের টহলের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Advertisement