Advertisement
১৫ জুলাই ২০২৪
Dev

হিরণ-সহ সমস্ত প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোটের সমসংখ্যক গাছ রোপণ শুরু দেবের, বললেন, ‘সবুজ ঘাটাল চাই’

গাছের চারা লাগাতে এসে দেব জানান, আগের ঘোষণা মতো তিনি যত ভোট পেয়েছেন তত নয়, বরং ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রে যত ভোট পড়েছে তত সংখ্যক বৃক্ষরোপণ হবে। সংখ্যাটা প্রায় ১৫ লক্ষ।

Dev

বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি শুরু দেবের। —নিজস্ব চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
ঘাটাল শেষ আপডেট: ০৯ জুন ২০২৪ ১৫:৪৬
Share: Save:

‘যত ভোট পাব, তত গাছ লাগাব ঘাটালে।’ ভোটের আগে এই অঙ্গীকার করেছিলেন ঘাটালের বিদায়ী সাংসদ তথা তৃণমূল প্রার্থী দেব। ফলঘোষণার চার দিনের মধ্যেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে শুরু করলেন তৃতীয় বারের সাংসদ। তবে বদলে গেল সেই অঙ্গীকার। এ বার ঘাটালের সাংসদের লক্ষ্য, ’২৪-এর লোকসভা ভোটে ঘাটালে নোটা বাদ দিয়ে যত ভোট পড়েছে ততগুলো গাছ লাগাবেন তিনি। রবিবার সেই ‘কর্মসূচি’র শুরু করে দিলেন তিনি। গরমে ঘেয়েনেয়ে গাছ রোপণ করতে করতে দেব বলেন, ‘‘গ্লোবাল ওয়ার্মিং রোধে এটাই একমাত্র পথ। আর আমিই হয়তো একমাত্র সাংসদ যে এমন লক্ষ্য নিয়ে নেমেছে। আমি চাই সবুজ ঘাটাল।’’

রবিবার সবং বিধানসভার উচিৎপুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে গাছের চারা লাগাতে এসে দেব জানান, আগের ঘোষণা মতো তিনি যত ভোট পেয়েছেন তত নয়, বরং ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রে যত ভোট পড়েছে তত সংখ্যক বৃক্ষরোপণ হবে। সংখ্যাটা প্রায় ১৫ লক্ষ। তবে নোটায় যত ভোট পড়েছে, সেটা বাদ রাখা হয়েছে। দেবের কথায়, ‘‘কারণ, তাঁরা কোনও প্রার্থীকেই পছন্দ করেননি।’’

তৃণমূল প্রার্থী জানিয়েছেন, আগামী পাঁচ বছর ধরে ঘাটালের সাতটি বিধানসভা এলাকায় মোট ১৫ লক্ষ বৃক্ষরোপণ হবে শুধু তাঁর উদ্যোগে। অন্যদেরও এই কাজে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। আর শুধু বৃক্ষরোপণ করেই দায়িত্ব শেষ করে দেওয়া নয়, চারাগাছগুলোর রক্ষণাবেক্ষণের জন্যও তাঁর কাছে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান দেব। মন্ত্রী মানস ভূঁইয়া দেবের উদ্যোগ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘ সবং এলাকায় ৩৩ হাজার চারাগাছ লাগানো হবে। রবিবার যখন প্রধানমন্ত্রী শপথ নেবেন, তাঁর আগে দেব তাঁর প্রতিশ্রুতি পালন শুরু করলেন।’’ উল্লেখ্য, মানস এখন রাজ্যের পরিবেশমন্ত্রী। অন্য দিকে, দেব বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রীকে শপথ নেওয়ার আগে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। রাজনীতি ভুলে (বাংলার) টাকা না আটকে তাঁরা কাজ করবেন, এই আশা রাখছি।’’ পাশাপাশি পরাজিত প্রতিদ্বন্দ্বী, বিজেপি প্রার্থী হিরণ চট্টোপাধ্যায় সম্পর্কেও মুখ খোলেন দেব। তিনি বলেন, ‘‘আমি কখনও কোনও ব্যক্তি নিয়ে কোনও মঞ্চে বক্তব্য করিনি। হিরণকে আমার শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।’’ তৃণমূল সাংসদ জানান, রবিবার সবং, ডেবরা, পিংলা, কেশপুর, দাসপুর, ঘাটাল এবং পাঁশকুড়া এলাকায় প্রথম দিনে দশ হাজার বৃক্ষরোপণ তাঁদের ‘টার্গেট’।

লোকসভা ভোটে দেব তৃতীয় বার জয়যুক্ত হওয়ার আগেই দেবের তরফে চারাগাছ কেনার জন্য দশটি নার্সারিতে বরাত দেওয়া হয়। দেব নিজে ভোট পেয়েছেন ৮৪১১৯৫টি। বিজেপি প্রার্থী হিরণের প্রাপ্ত ভোট ৬৫৭৮৫৮। আকাশমণি, শাল, সেগুন, শিশু, আম, কাঁঠাল, জাম ইত্যাদি গাছ লাগানো হবে। সেই অনুযায়ী অর্ডার দেওয়া হয়েছে নার্সারিগুলিতে। ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রে পাঁশকুড়া বিধানসভা বাদ দিয়ে ছ’টি বিধানসভা এলাকায় জয় লাভ করেছেন দেব। সেখানে ১৭৬টি ভোটে এগিয়ে বিজেপি। মন্ত্রী মানস ভূঁইয়ার এলাকায় ৩২৬৮৩, মন্ত্রী তথা ডেবরার বিধায়ক হুমায়ূন কবীরের বিধানসভা এলাকায় ৫৮২৭ এবং পিংলার বিধায়ক অজিত মাইতির এলাকায় ১৯৯১৩ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন দেব।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Dev ghatal TMC MP TMC
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE