Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৪ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

TMC: জাকির মন্ত্রী হচ্ছেন, ধরে নিয়ে শুরু প্রচার

সফল শিল্পপতি জাকিরের রাজনীতিতে এসে কতটা লাভ হয়েছে বা হয়নি এ বারের নির্বাচনে সে প্রশ্নও তুলছেন একশ্রেণির ভোটার।

নিজস্ব সংবাদদাতা 
জঙ্গিপুর ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৫:২৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

Popup Close

তৃণমূলের কর্মীরা নিশ্চিত জাকির হোসেন নির্বাচনে জিতে ফের রাজ্যের মন্ত্রী হচ্ছেন।

প্রচারে গিয়ে তাই দরাজ কন্ঠেই খলিলুর রহমানকে বলতে হচ্ছে, “নির্বাচনে জিতে জাকির হোসেনকে মন্ত্রী করার জন্য আমরা অনুরোধ করব দলনেত্রীর কাছে। আমাদের বিশ্বাস দলনেত্রী কথা রাখবেন।”

দলের জঙ্গিপুরের জেলা সভাপতির কথা কর্মীদের মনে ভরসা জোগালেও সংশয় তবু কাটছে না। তাই ভোটের প্রচারে তাঁর জয়ের থেকেও বড় হয়ে উঠেছে জাকিরের মন্ত্রী হওয়ার ইস্যুই।

Advertisement

তৃণমূলের এক নেতার কথায়, “মুখ্যমন্ত্রী জঙ্গিপুরে এলে জাকিরের মন্ত্রী হওয়ার বিষয় নিয়ে সভায় মুখ খুলতেন। তাতে অনুগত কর্মীরা নিশ্চিত হতে পারতেন তার মন্ত্রিত্ব প্রাপ্তি নিয়ে।” মমতার সভা বাতিলে তা কতটুকু নিশ্চিত জানা গেল না।

জাকির প্রথম নির্বাচনে জিতে প্রতিমন্ত্রী হন ২০১৬ সালে। জেলার একমাত্র মন্ত্রী হিসেবে ছুটে বেড়িয়েছেন জেলার এ প্রান্ত থেকে ওপ্রান্তে। দলের যে কোনও অনুষ্ঠানে অকাতরে আর্থিক সংস্থান জুগিয়েছেন তিনি। সারা বছর ধরে দান ধ্যান করে ধরে রেখেছেন জনসংযোগও। কিন্তু রাজনৈতিক জীবনে পদে পদে বাধার মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। দফায় দফায় নির্বাচন পিছিয়ে গিয়ে বিধায়ক হওয়ার রাস্তা বিলম্বিত করেছে যেমন, তেমনই নিমতিতা বিস্ফোরণে তাঁর আহত হয়ে দীর্ঘদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা একটা বড় ধাক্কা। বিস্ফোরণে কাণ্ডের তদন্ত তাঁকে কিছুটা অস্বস্তিতে ফেলেছে।

সফল শিল্পপতি জাকিরের রাজনীতিতে এসে তাই কতটা লাভ হয়েছে বা হয়নি এ বারের নির্বাচনে সে প্রশ্নও তুলছেন একশ্রেণির ভোটার। সেক্ষেত্রে মন্ত্রিত্ব না পেলে অবশ্যই তার ভাবমূর্তি কিছুটা হলেও ক্ষুণ্ণ হবে বলেই ধারণা অনেকেরই।

তৃণমূলের এক প্রাক্তন জেলা সহ সভাপতির মতে, ‘‘নির্বাচনটা যথা সময়ে হলে জাকিরের মন্ত্রিত্ব পাওয়া নিয়ে কোনও সংশয় ছিল না। কারণ জেলায় মন্ত্রিত্বের তালিকায় প্রথমেই নাম থাকত তাঁর। তা ঘটেনি। বর্তমানে যে দুজনকে মন্ত্রী করা হয়েছে তারা দুজনেই জঙ্গিপুর মহকুমা বা সাংগঠনিক জেলার বিধায়ক। জাকিরও এই মহকুমার বিধায়ক হবেন। আর তাতেই বেড়েছে সংশয়। জাকিরকে মন্ত্রী করলে মুর্শিদাবাদের বাকি অংশের ১৩ জন বিধায়কের মধ্যেও অন্তত এক জনকে মন্ত্রী করতে হয়। তা হলে অঙ্কটা দাঁড়ায় ২০ জন বিধায়কে ৪ জন মন্ত্রী।’’

সংশয় থাকলেও, ওই নেতা অবশ্য নিশ্চিত জাকির মন্ত্রী হবেন এবং বর্তমান দুজনের মধ্যে একজন বাদ পড়লেও পড়তে পারেন।
জাকির অনুগত দলের বিদায়ী মুখপাত্র ও জঙ্গিপুর বিধানসভার ব্লক সভাপতি গৌতম ঘোষ বলছেন, “কে কী বলছেন জানি না। তবে আমি যতটুকু জানি জাকির হোসেন নির্বাচিত হলেই নিশ্চিত ভাবেই রাজ্যের মন্ত্রী হবেন।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement