Advertisement
২৬ জুন ২০২৪
Domkol

ঘরে ঢুকে বেধড়ক মার ডোমকল পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যানকে! আঙুল দলেরই বিধায়কের দিকে

পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকার বেশ কয়েক জন মানুষের কাছ থেকে আবাস যোজনায় টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অন্য দিকে, বিধায়কের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করেন তিনি।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রদীপের মাথায় এবং বুকে চোট রয়েছে বলে খবর।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রদীপের মাথায় এবং বুকে চোট রয়েছে বলে খবর। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ডোমকল শেষ আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ১৯:১৮
Share: Save:

ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ডোমকল পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান প্রদীপ চাকীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল দলেরই বিধায়ক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে। রবিবার এ নিয়ে মুর্শিদাবাদের ডোকমকলে রাজনৈতিক চাপান-উতোর চরমে। প্রদীপের মাথায় এবং বুকে আঘাত লেগেছে বলে খবর। বর্তমানে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন তিনি। অন্য দিকে, এই অভিযোগ নিয়ে ডোমকলের বিধায়ক জাফিকুল ইসলামের প্রতিক্রিয়া নেওয়ার চেষ্টা করেও ফোনে তাঁকে পাওয়া যায়নি।

ঘটনার সূত্রপাত রবিবার বেলায়। বেশ কিছু দিন ধরে প্রদীপের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ‘কাটমানি’ নেওয়ার অভিযোগে সরগরম ছিল এলাকা। রবিবার এই ইস্যুতে পথ অবরোধ করেন স্থানীয়রা। পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকার বেশ কয়েক জনের কাছ থেকে আবাস যোজনায় টাকা নেওয়ার অভিযোগ করেন তাঁরা।

এর পর বেলা ৩টে নাগাদ ডোমকল ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রদীপের উপর হামলার অভিযোগ ওঠে। দোকানে থাকাকালীন দলেরই কয়েক জন তাঁকে মারধর করেন বলে অভিযোগ করেছেন প্রদীপ। অভিযোগ, লোহার রড, বাঁশ এমনকি, পিস্তলের বাট দিয়ে তাঁকে ও তাঁর ছেলেকে মারধর করা হয়। প্রদীপের অভিযোগ, ‘‘ওয়ার্ড সভাপতি ঋজু পাল ও বাবুর নেতৃত্বে জাফিকুল-ঘনিষ্ঠ ২০-২৫ জন দুষ্কৃতী আমায় লোহার রড, বাঁশ, বন্দুক দিয়ে মারধর করে।’’ তাঁর দাবি, বিধায়কের দুর্নীতির বিরুদ্ধে মুখ খোলাতেই এই আক্রমণ নেমে এসেছে তাঁর উপর। যদিও ঋজু সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। আনন্দবাজার অনলাইনকে তিনি বলেন, ‘‘আমি বাড়ি ছিলাম না। এ নিয়ে বলতে পারব না।’’ অন্য দিকে, জাফিকুলের প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

উল্লেখ্য, কিছু দিন আগে ডোমকলের বিধায়ক তথা ডোমকল পৌরসভার চেয়ারম্যান জাফিকুলের বিরুদ্ধে ‘আরবান হেলথ সেন্টার’ নির্মাণ প্রকল্পের ৯০ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করেছিলেন পুরসভারই ভাইস চেয়ারম্যান প্রদীপ। তিনি জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের দফতর থেকে পাওয়া নথি দেখিয়ে দাবি করেছিলেন, ২০২১ সালে ডোমকল পৌরসভার ৮ এবং ২০ নম্বর ওয়ার্ডে দুটি স্বাস্থ্যকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে পুরসভা যে টাকা পায়, তার কাজ এখনও শুরু হয়নি। তার পরই রবিবারের ঘটনা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Domkol Municipality beaten TMC
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE