Advertisement
৩০ মার্চ ২০২৩
poster

পুরপ্রতিনিধির খোঁজ চেয়ে পড়ল পোস্টার

গাঙুরিয়ার মুসলিমপাড়ায় ১০ থেকে ১২টি এমন পোস্টার দেখা যায়। কোনওটিতে লেখা—  “৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিলয় রায় নিখোঁজ।” আবার দরমার বাড়িঘর না-পাওয়া নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে কোনও পোস্টারে।

Poster

নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
হরিণঘাটা শেষ আপডেট: ১৯ মার্চ ২০২৩ ০৭:২০
Share: Save:

হরিণঘাটার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল পুরপ্রতিনিধির নামে নিখোঁজ-পোস্টার পড়ল।

Advertisement

শনিবার সকালে গাঙুরিয়ার মুসলিমপাড়ায় ১০ থেকে ১২টি এমন পোস্টার দেখা যায়। কোনওটিতে লেখা— “৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিলয় রায় নিখোঁজ।” আবার দরমার বাড়িঘর না-পাওয়া নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে কোনও পোস্টারে।

নিলয়ের দাবি, “সিমহাট এলাকায় এক ব্যক্তি সবার স্বার্থে জমি দান করেছিলেন। সেই জমি সেলিম মণ্ডল নামে এক জন বিক্রি করে দেন। সেই নিয়ে আমি সরব হয়েছিলাম। শুক্রবার সেলিমের ঘরের ছাদ ঢালাই হয়েছে। অথচ ঘরের নকশা পুরসভা থেকে অনুমোদন করানো নেই। সে কথা বলায় ওরা এটা করেছে। সেলিম ও কামালউদ্দিন বিশ্বাস-সহ চার জনের নামে থানায় অভিযোগ করেছি।”

তবে কামাল-সেলিমদের দাবি, “পোস্টার আমরা মারিনি। কে মেরেছে তা বলতে পারব না।” তাঁদের অভিযোগ, ‘হাউসিং ফর অল’ প্রকল্পে ঘর না পাওয়া নিয়ে নিলয়ের প্রতি মানুষের ক্ষোভ রয়েছে। যাঁরা প্রকৃত ঘর পাওয়ার যোগ্য, তাঁরা ঘর পাননি। পুরপ্রতিনিধিকে বললেও এই পাড়ায় আসেন না। নিলয় পাল্টা বলেন, “এ কথা যাঁরা বলছেন, তাঁরাই সবার আগে ঘর নিয়েছেন। গরিব মানুষের কথা ভাবেননি তখন।"

Advertisement

সেলিমের দাবি, তাঁরা তৃণমূলের কর্মী। অথচ পুরসভা নির্বাচনে যারা আইএসএফ করেছে নিলয় তাদের সঙ্গে নিয়ে চলেন। কামাল অবশ্য এক সময় তৃণমূল করলেও এখন সক্রিয় ভাবে রাজনীতি করেন না বলে জানিয়েছেন। গত পুর নির্বাচনে তিনি ৫ নম্বর ওয়ার্ডে নির্দল প্রার্থী হিসাবে দাঁড়িয়েছিলেন। পরে নাম তুলে নেন। হরিণঘাটা শহর তৃণমূলের একাংশের পাল্টা দাবি, সেলিমদেরই কেউ কেউ এখন আইএসএফ করছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.