Advertisement
০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Panchayat Election

পঞ্চায়েতে বাড়ছে আসন, বদল অঙ্কেও

গত লোকসভা ও বিধানসভা ভোটে দক্ষিণ নদিয়ায় বিজেপির কাছে বড় ধাক্কা খেয়েছিল তৃণমূল। সেই দক্ষিণেরই তিনটি ব্লকে এ বার চারটি জেলা পরিষদ আসন বাড়ছে।

আসন বাড়ছে শাসক দলের।

আসন বাড়ছে শাসক দলের। প্রতীকী চিত্র।

সুস্মিত হালদার
কৃষ্ণনগর শেষ আপডেট: ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ০৮:০৪
Share: Save:

আসন পুনর্বিন্যাসের জেরে নদিয়া জেলা পরিষদ থেকে গ্রাম পঞ্চায়েতের তিনটি স্তরেই আসনসংখ্যা বাড়ছে। যার মধ্যে বেশ কিছু জানগায় গত লোকসভা ও বিধানসভা ভোটের নিরিখে পিছিয়ে ছিল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল। আবার সদ্য হয়ে যাওয়া পুরভোটে ওই সব পঞ্চায়েত এলাকা লাগোয়া পুরসভাগুলিতে বিরোধীদের প্রায় নিশ্চিহ্ন করে দিয়েছে তারা। তা ছাড়া আধা সেনার বদলে পাহারায় থাকবে রাজ্য পুলিশ। ফলে আসন বাড়ার ফয়দা কারা তুলবে তা নিয়ে সংশয় থাকছেই।

Advertisement

গত লোকসভা ও বিধানসভা ভোটে দক্ষিণ নদিয়ায় বিজেপির কাছে বড় ধাক্কা খেয়েছিল তৃণমূল। সেই দক্ষিণেরই তিনটি ব্লকে এ বার চারটি জেলা পরিষদ আসন বাড়ছে। কল্যাণীতে দু’টি আসন বেড়ে মোট তিনটি, চাকদহে একটি বেড়ে তিনটি এহং কৃষ্ণগঞ্জ ব্লকে একটি বেড়ে তিনটি আসন হচ্ছে। এই তিন এলাকাতেই বিজেপি এগিয়ে ছিল। এর মধ্যে কল্যাণী ও চাকদহ কেন্দ্রে পুরভোটে প্রবল ভাবে জিতেছে তৃণমূল। কৃষ্ণগঞ্জে পুরসভা নেই, ফলে পুরভোট হয়নি। এর পাশাপাশি উত্তরে তেহট্টে ২ ব্লকে পলাশিপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রেও একটি জেলা পরিষদ আসন বাড়ছে। সেখানেও পুরভোট হয়নি। আগের দু’টি ভোটে তৃণমূলই এগিয়ে ছিল।

কিন্তু সেই পলাশিপাড়া নিয়েও এখন পুরোপুরি স্বস্তিতে নেই শাসক দল। কারণ সম্প্রতি এই কেন্দ্রের বিধায়ক মানিক ভট্টাচার্য টেট দুর্নীতির অভিযোগে জেল হেফাজতে রয়েছেন। পঞ্চায়েত ভোটে এটা নিশ্চিত ভাবেই সামনে সিপিএম, কংগ্রেস ও বিজেপি। তবে যেহেতু পুরভোটের মতো পঞ্চায়েত ভোটও স্থানীয় চাওয়া-পাওয়ার উপরে অনেকটা নির্ভর করে, লোকসভা বা বিধানসভা ভোটের ফল এখানে প্রতিফলিত হবে না। পঞ্চায়েত ভোটেও পুরভোটের ধারাই বজায় থাকবে।

যদিও এ সব ‘যুক্তি’ মানতে নারাজ বিরোধীরা। রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের দাবি, “পুরসভা ভোট রাজ্য পুলিশ দিয়ে করা হয়েছিল। সন্ত্রাস আর ছাপ্পা ভোটে জিতেছে তৃণমূল। এ বার কিন্তু সেটা হবে না। এ বার মানুষ প্রতিরোধ তৈরি করবে।” সিপিএমের নদিয়া জেলা সম্পাদক সুমিত দে-ও দাবি করছেন, “আগের বারের পঞ্চায়েত নির্বাচনের মতো সদ্য পুর নির্বাচনেও তৃণমূল ভোট লুট করে জিতেছে। এ বার আর সেটা পারবে না। মানুষই নিজেদের অধিকার বুঝে নেবে।”

Advertisement

তবে জেলা তৃণমুলের মুখপাত্র বাণীকুমার রায় বলেন, “পঞ্চায়েত ভোটে মানুষ আগের দুই ভোটের ভুল শুধরে নেবেন। আর মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁদের ভোলানো যাবে না। মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের কথা মাথায় রেখে সর্বত্র আমাদেরই জয়ী করবেন।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.