Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

তিন মাসেই বদলি এসপি 

নিজস্ব সংবাদদাতা
বহরমপুর ১৮ এপ্রিল ২০২০ ০০:৩৯
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

মুর্শিদাবাদ পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার অজিত সিংহ যাদবকে বদলি করা হল। তাঁর জায়গায় জেলা পুলিশ সুপারের দায়িত্বে এলেন সিআইএসএফের পুলিশ সুপার (সদর) কে সবরি রাজকুমার। শুক্রবার দুপুরে তিনি মুর্শিদাবাদের পুলিশ সুপার হিসেবে কাজে যোগ দিয়েছেন। রাজকুমারের পুরনো জায়গা দুর্গাপুরে সিআইএসএফের পুলিশ সুপার (সদর) পদে গেলেন অজিত সিংহ যাদব। মাত্র তিন মাসের মধ্যেই এই বদলি কেন? তা নিয়ে পুলিশ মহলে শুরু হয়েছে চর্চা। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে মুর্শিদাবাদের পুলিশ সুপার হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন অজিত। তবে এ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করতে চাননি অজিত। শুক্রবার বিকেলে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের সব জেলা প্রশাসনের সঙ্গে ভিডিয়ো

বৈঠকের সময়ে মুর্শিদাবাদের পুলিশ সুপারের বদলির কারণ অবশ্য জানিয়ে দিয়েছেন। এ দিনের ভিডিয়ো বৈঠকে তিনি বলেন, ‘‘যত গণ্ডগোল ওখানে হবে কেন, একটার পর একটা। সে জন্য পুলিশ সুপারকে সরিয়ে দিয়েছি।’’

মুর্শিদাবাদ রেঞ্জের ডিআইজি মুকেশ কুমারকে উদ্দেশ্যে করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘মুর্শিদাবাদে নতুন এসপি যোগ দিয়েছেন। তোমাদের ভাল টিম ওখানে আছে, ভাল করে কাজ করো।’’

Advertisement

কেমন গন্ডগোল হয়েছে জেলায়? সূত্রের খবর গত সপ্তাহে শুক্রবারের নমাজে বড়ঞার একটি মসজিদে কয়েকশো মানুষ ভিড় জমিয়েছিলেন। ঘটনার খবর পেয়ে কান্দির এসডিপিও কুমার সানরাজের নেতৃত্বে পুলিশ বাহিনী গিয়ে তাঁদের সরিয়ে দেয়। মসজিদের সেই জমায়েত নিয়ে সর্বভারতীয় স্তরে হইচই কম হয়নি। বড়ঞার কথা উল্লেখ না করেই মুখ্যমন্ত্রী জেলা প্রশাসনের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন তুলে বলেন, ‘‘মুর্শিদাবাদের মন্দির মসজিদ লোকজনের ভিড় হচ্ছে কেন। এটা বাবা দরকার।’’

দু’দিন আগে ডোমকলে খাবারের দাবিতে দীর্ঘক্ষণ রাস্তা অবরোধ করেছিলেন সেখানকার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। ঘণ্টা তিনেক ধরে অবরোধ চললেও পুলিশ তা তুলতে পারেনি। পরে ডোমকল পুরসভার চেয়ারম্যান জাফিকুল ইসলামের আশ্বাসে সে দিন অবরোধ ওঠে।

অজিত সিংহ যাদবের আমলেই জলঙ্গির সাহেবনগরে এনআরসি বিরোধী আন্দোলনে শাসকদলের নেতার গুলিতে দু’জন আন্দোলনকারীর মৃত্যু হয়েছিল। তা নিয়ে রাজ্য জুড়ে প্রবল হইচই হয়। নবান্ন যে তা ভাল চোখে দেখেনি, পুলিশ সুপারের বদলি তারই প্রথম ধাপ বলে মনে করছেন পুলিশ কর্তারা।

আরও পড়ুন

Advertisement