Advertisement
১৫ জুলাই ২০২৪

নারী-নিগ্রহে মুখ্যমন্ত্রী চুপ! মমতাকেই ঠুকল কমিশন

জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা কলকাতায় বসে ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলছেন, ভোটকে কেন্দ্র করে মহিলাদের উপরে অত্যাচার কোনও সভ্য গণতান্ত্রিক দেশে হয় না।

 বৈঠক: নির্যাতিতাদের সঙ্গে কথা বলছেন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা। নিজস্ব চিত্র

 বৈঠক: নির্যাতিতাদের সঙ্গে কথা বলছেন জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ জুন ২০১৮ ০৪:১৮
Share: Save:

পঞ্চায়েত নির্বাচনকে ঘিরে নারী-নিগ্রহ নিয়ে জাতীয় মহিলা কমিশন এবং রাজ্য মহিলা কমিশনের মধ্যে চাপান-উতোর শুরু হয়েছে।

জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা কলকাতায় বসে ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলছেন, ভোটকে কেন্দ্র করে মহিলাদের উপরে অত্যাচার কোনও সভ্য গণতান্ত্রিক দেশে হয় না। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করে তিনি বলেছেন, ‘‘আমি কোনও রাজনৈতিক দলের পক্ষে কথা বলছি না। কিন্তু এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নিজে মহিলা হয়ে মহিলাদের উপরে অত্যাচার হচ্ছে জেনেও চুপ! কোনও ব্যবস্থাই নিচ্ছেন না তিনি।’’

আর রাজ্য মহিলা কমিশনের দাবি, ভোটের আগে-পরে মহিলাদের উপরে কোনও অত্যাচারই হয়নি।

বুধবার কলকাতার হোটেলে বসে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা মহিলাদের অভিযোগ শোনেন রেখাদেবী। তিনি জানান, ভোট গণতন্ত্রের অংশ। রাজ্যে সেই ভোট প্রক্রিয়াকে কেন্দ্র করে মহিলাদের উপরে যে-অত্যাচার হয়েছে, তা কোনও গণতান্ত্রিক দেশে হতে পারে না। মহিলাদের স্ব-শক্তিকরণের কথা বলা হচ্ছে। অথচ মহিলারা যখন রাজনীতিতে এলে ভয় দেখিয়ে, অত্যাচার করে দমিয়ে রাখা হচ্ছে।

রাজ্য পুলিশের ডিজি-র ভূমিকা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেন রেখাদেবী। তিনি বলেন, ‘‘বিভিন্ন অভিযোগ পেয়ে ডিজি-কে দু’-দু’টি চিঠি পাঠিয়েছিলাম। উত্তর পাইনি। এ দিন ওঁকে ফোন করেছি। ফোন বেজে গিয়েছে। মেসেজেরও উত্তর দেননি।’’

২৫ জন মহিলা এ দিন রেখাদেবীর সঙ্গে দেখা করেন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন বাঁকুড়া থেকে আসা বিজেপির রাজ্য মহিলা মোর্চার সম্পাদক। ভোটগণনার দিন থেকে স্বামী ও ছেলেকে নিয়ে তিনি ঘরছাড়া বলে জানান। ছিলেন বসিরহাট, হুগলি, হাওড়া থেকে শুরু করে নদিয়া, পুরুলিয়া থেকে আসা মহিলারাও। তাঁদের কেউ ভোটে জিতেছেন, কেউ বা হেরেছেন। বিরোধী দলের প্রার্থী হওয়ায় কী ভাবে অত্যাচারের সামনে পড়তে হচ্ছে, তা জানাতে সকালেই তাঁরা হাজির হন কমিশনের সামনে। রেখাদেবী আজ, বৃহস্পতিবার নদিয়ার শান্তিপুরে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘‘ভোটের আগে ওখানে এক অন্তঃসত্ত্বাকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ। আরও অভিযোগ আছে। সবই দেখব।’’

রাজ্য মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন দেশে নেই। ভাইস চেয়ারপার্সন রত্না ঘোষ বলেন, ‘‘আমরা জেলায় জেলায় ঘুরে বেড়াচ্ছি। কিন্তু আমাদের কাছে কোনও অভিযোগ জমা পড়েনি!’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE