Advertisement
০২ ডিসেম্বর ২০২২
Web Series

ফেলুদা-র ‘সঙ্গে’ উচ্চমাধ্যমিকের সেরা জলপাইগুড়ির গ্রন্থন

ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ফেলুদার গোয়েন্দাগিরি ওয়েব সিরিজ়ে ‘দার্জিলিং জমজমাট’ কাহিনিতে সহ-নির্দেশকই শুধু নয়, ছোট্ট ভূমিকায় অভিনয়ও করেছেন গ্রন্থন।

‘দার্জিলিং জমজমাট’ ওয়েব সিরিজ়ে গ্রন্থন।

‘দার্জিলিং জমজমাট’ ওয়েব সিরিজ়ে গ্রন্থন।

অনির্বাণ রায়
জলপাইগুড়ি শেষ আপডেট: ২১ জুন ২০২২ ০৮:২১
Share: Save:

উচ্চমাধ্যমিকে রাজ্যে প্রথম স্থানাধিকারী গ্রন্থন সেনগুপ্ত এ বার তাক লাগিয়ে দিল অন্য ময়দানেও! সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘দার্জিলিং জমজমাট’ ওয়েব সিরিজ়ে সহ-নির্দেশনা করেছেন তিনি। ২০১৮ সালে উচ্চমাধ্যমিকে রাজ্য-সেরা গ্রন্থন এখন যাদবপুরের স্নাতকোত্তরে পাঠরত। পড়াশোনার পাশাপাশি অভিনয়ের প্রতি আবেগ ও ভালবাসাই আজ তাঁকে অন্য এক শীর্ষে পৌঁছে দিয়েছে বলে মনে করেন জলপাইগুড়ির ছেলে গ্রন্থন।

Advertisement

গ্রন্থন বলেন, “ছোট থেকেই তো আমার অভিনয়, নির্দেশনার প্রতি দুর্দান্ত টান। আমাদের ছোট প্রান্তিক শহর থেকে কলকাতায় এসে বুঝেছি, জমি কতটা শক্ত। অনেকের কাছে আমি কাজ করতে চেয়ে সুযোগ চেয়েছি। সে ভাবেই যোগাযোগ হয়েছে।” ফেলুদা সিরিজ়ের গোড়া থেকেই গ্রন্থন সৃজিতের সঙ্গী। বিভিন্ন দৃশ্যায়নের পরিকল্পনা থেকে খুঁটিনাটি দেখতে হয় সহ-নির্দেশকদের। গ্রন্থনের কথায়, “নানা পরিকল্পনা করে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের কাছে নিয়ে যেতাম। সেগুলি খুব খারাপ হলে বকাও খেতাম।”

ছোট থেকেই নাটকে চুটিয়ে অভিনয় করেছে গ্রন্থন। সঙ্গে গান গেয়েছে, গিটার বাজিয়েছেন। ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ফেলুদার গোয়েন্দাগিরি ওয়েব সিরিজ়ে ‘দার্জিলিং জমজমাট’ কাহিনিতে সহ-নির্দেশকই শুধু নয়, একটি ছোট্ট ভূমিকায় অভিনয়ও করেছেন গ্রন্থন। দুই নিয়েই জোরদার প্রশংসা পেতে শুরু করেছেন জলপাইগুড়ি জেলা স্কুলের প্রাক্তনী। সমাজমাধ্যমে অনেকেই গ্রন্থনকে অভিনন্দন জানিয়ে লিখেছেন, ‘উচ্চমাধ্যমিকে রাজ্যের সেরাকে এমন ব্যতিক্রমী পথে দেখে ভাল লাগল।’ তবে কলা বিভাগে পড়াশোনা করে উচ্চমাধ্যমিকে শীর্ষ হওয়ার মতো ব্যতিক্রম চার বছর আগেই দেখিয়েছিলেন তিনি।

গ্রন্থনও জানিয়েছে, ফেলুদা ওয়েব সিরিজ়ের সাফল্যের পরে সাড়াও মিলছে ভাল। তবে পড়াশোনা তিনি ছাড়ছেন না। আগামী বছর স্নাতকোত্তর পাঠক্রম শেষ হবে। তার পর? গ্রন্থনের কথায়, “এখন আমিও নিজেকেও এই প্রশ্নটা করি। এ বার আমার কী করা উচিত? কিন্তু আমি আমার পড়াশোনা নিয়ে খুব খুশি আছি। পড়াশোনা করে যেতে চাই, যতদিন করা যায়। সুযোগ পেলে গবেষণা করার ইচ্ছে রয়েছে। তার সঙ্গে এই যে নতুন জগতটা পেয়েছি, সেটা কোনও ভাবেই ছাড়ব না। কারণ ভবিষ্যতে আমার শিল্প-সংস্কৃতিতে যুক্ত থাকার ইচ্ছে।”

Advertisement

গ্রন্থনের সহ-নির্দেশকের ভূমিকা শুরু হয়ে ‘সুন্দরবনের বিদ্যাসাগর’ নামের একটি ওয়েব সিরিজ় দিয়ে। তার পরেই সরাসরি সৃজিতের সঙ্গে কাজ এবং সেই কাজ ফেলুদা ওয়েব সিরিজ়। দার্জিলিং জমজমাটের ট্রেলারেও দেখা যাচ্ছে গ্রন্থনকে। সিরিজ়ে একটি সিনেমার দৃশ্য শ্যুটিং হওয়া দেখানো হয়েছে। তাতে ক্ল্যাপস্টিক হাতে ধরা জুনিয়র আর্টিস্টের দৃশ্য ছিল। সেই দৃশ্যে নেমে পড়েন গ্রন্থন নিজেই। সহ-নির্দেশনার সঙ্গে এ ভাবেও ফেলুদার সঙ্গে এক ছবিতে ঢুকে পড়েছেন গ্রন্থন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.