Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Coochbehar

কাটমানির অভিযোগে তৃণমূল নেতার বাড়ি ঘেরাও করল তৃণমূল কর্মীরাই

কাটমানি এবং কাজের টাকা ফেরতের দাবিতে রবিবার পানিশালা গ্রাম পঞ্চায়েতের অঞ্চল সভাপতি বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান ওই এলাকার তৃণমূল কর্মীরা।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কোচবিহার শেষ আপডেট: ২২ মে ২০২২ ২১:১৮
Share: Save:

কাটমানি ফেরতের দাবিতে কোচবিহার ১ নম্বর ব্লকের পানিশালা গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতির বাড়ি ঘেরাও করল স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা।

গত ৫ বছর আগে রাস্তা তৈরির কাজের ১২ লক্ষ টাকার বিল পাস করার জন্য ৩ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি খবির উদ্দিন মিঞার বিরুদ্ধে। স্থানীয় তৃণমূলকর্মীদের দাবি, নিজে কাটমানি নিলেও রাস্তার কাজের প্রায় ১২ লক্ষ টাকার বিল আটকে রয়েছে ওই অঞ্চল সভাপতির জন্যই। তাঁরা জানিয়েছেন, টাকা ফেরত চাইলে প্রাণে মারার হুমকিও দেওয়া হচ্ছে । এই পরিস্থিতিতে কাটমানি এবং কাজের টাকা ফেরতের দাবিতে রবিবার পানিশালা গ্রাম পঞ্চায়েতের অঞ্চল সভাপতি বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান ওই এলাকার তৃণমূল কর্মীরা। তবে দলের অঞ্চ সভাপতির বিরুদ্ধে তৃণমূলের কর্মীরাই কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ আনায় অস্বস্তিতে পড়েছে জেলা তৃণমূল কংগ্রেস।

তৃণমূল কর্মী কুদ্দুস আলি জানিয়েছেন, পঞ্চায়েতের বেশ কয়েকজন যুবক রাস্তা তৈরির ওই কাজটি নিয়েছিলেন। ১২ লক্ষ টাকার কাজ। অনেকের থেকে অর্থ সংগ্রহ করে কাজটি শেষও হয়েছিল। কাজটি হওয়ার পর তার বিল পাইয়ে দেওয়ার জন্য খবির উদ্দিন এবং ইয়াকুব আলি নামে আরও একজন সেই বিল পাইয়ে দেওয়ার জন্য ৩ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা দাবি করে। কিন্তু সেই টাকা তাঁকে দেওয়া হলেও কাজ হয়নি। বিল পাননি তাঁরা। পঞ্চায়েতের অন্য কাজের বিল পাস হয়ে গেলেও রাস্তা তৈরির বিল আটকে রয়েছে।

এ ব্যাপারে খবির উদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি পার্থ প্রতিম রায় বলেন, ‘‘আমি বাইরে রয়েছি। বিষয়টি জানা নেই। তবে বিষয়টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE