Advertisement
২৫ মে ২০২৪

ছাত্রীকে ধর্ষণ করে খুনে ধৃতরা পুলিশ হেফাজতে 

করণদিঘির অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে গণধর্ষণের পর খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ধৃত দু’জনকে ইসলামপুর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা আদালতে তোলা হলে তাদের চার দিনের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন বিচারক রমেশকুমার প্রধান।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ইসলামপুর শেষ আপডেট: ০৮ নভেম্বর ২০১৭ ০৩:৪০
Share: Save:

করণদিঘির অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে গণধর্ষণের পর খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ধৃত দু’জনকে ইসলামপুর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা আদালতে তোলা হলে তাদের চার দিনের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন বিচারক রমেশকুমার প্রধান।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের নাম হল গোঁসাই মণ্ডল ও রতন বিশ্বাস। তাদের বাড়ি করণদিঘি থানার কাদেরগছ এলাকায়। পুলিশ ও আদালত সূত্রে খবর, ধৃতদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬(২), ৩৭৬(ডি), ৩০২, ২০১আর/ডব্লিউ ৪/৬/৮/১২ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে। সরকারি আইনজীবী মুক্তার আহমেদ জানান, তাদের ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজত চাওয়া হলে বিচারক চার দিনের হেফাজত মঞ্জুর করেন।

গত শুক্রবার রাতে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে রাসমেলায় যাত্রা দেখতে গিয়েছিলেন ওই কিশোরীর বাবা মা। তাদের দরজা খুলে দিতে হবে বলে তিন বোনকে ঘরে শুয়ে নিজে বারান্দায় ঘুমিয়েই পড়েছিল বছর ১৪র ওই নাবালিকা।

অভিযোগ, সেই দিন রাতেই ওই নাবালিকাকে বিছানা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে বাড়ির পাশের একটি লিচু বাগানে গণধর্ষণ ও খুন করে বাড়ির বারান্দায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। যাত্রা দেখে ফিরে এসে ওই নাবালিকাকে রক্তাক্ত অবস্থায় বারান্দায় পড়ে থাকতে দেখেন ওই নাবালিকার বাবা মা। তাদের চিত্কারে এলাকার লোকেরা ছুটে আসেন। খবর পেয়ে পুলিশও ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

ওই ঘটনায় সোমবার দু’জনকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার ইসলামপুর মহকুমা আদালতে পেশ করে পুলিশ। উত্তর দিনাজপুরের পুলিশ সুপার শ্যাম সিংহ বলেন, ‘‘ঘটনার তদন্তে নেমে বেশ কিছু তথ্য উঠে এসেছে। ইতিমধ্যেই দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুরো বিষয়টির তদন্ত চলছে।’’ এ দিন আদালত চত্বরে দাঁড়িয়ে অবশ্য ওই গ্রেফতার হওয়া দুই যুবক নিজেদের নির্দোষ বলে দাবি করেছে।

ধর্ষণ করে কিশোরীকে খুনের ঘটনায় দুষ্কৃতীদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে এ দিন ইসলামপুরের পেট্রল পাম্প সংলগ্ন এলাকাতে ৩১ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় কংগ্রেস। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে অবরোধ ওঠে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Rape Rapist Jail Police Custody Student
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE