Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পুরনো পথেই দার্জিলিং মেল

নিজস্ব সংবাদদাতা
হলদিবাড়ি ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:০৩
—ফাইল ছবি

—ফাইল ছবি

হলদিবাড়ি থেকে উঠছে না দার্জিলিং মেলের কোচ। হলদিবাড়ির নবনির্মিত রেল স্টেশনের উদ্বোধন করতে এসে এমনটাই জানালেন জলপাইগুড়ির সাংসদ জয়ন্ত রায়।

মঙ্গলবার হলদিবাড়ি রেল স্টেশনের ফিতে কেটে ও ফলক উন্মোচন করে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সাংসদ। উপস্থিত ছিলেন উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের কাটিহার ডিভিশনের ডিআরএম রবীন্দ্রকুমার বর্মা-সহ রেলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকেরা।

গত বছর ডিসেম্বর মাসের ১২ তারিখ পূর্ব রেলের তরফে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়, আগামী ১০ এপ্রিলের পর থেকে হলদিবাড়ি স্টেশন থেকে দার্জিলিং মেলের সংযোগকারী কোচ দু’টি স্থায়ী ভাবে তুলে নেওয়া হবে। এই খবর চাউর হতেই ক্ষোভের সৃষ্টি হয় হলদিবাড়ি ও জলপাইগুড়ির বিভিন্ন মহলে। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, ব্যবসায়ী, প্রতিষ্ঠান রেল মন্ত্রকের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সংগঠিত করেন। এ দিন সেই বিক্ষোভের যবনিকা টানলেন সাংসদ। তাঁকে

Advertisement

যোগ্য সহযোগিতাও করলেন ডিআরএম।

ডিআরএম রবীন্দ্র বর্মাকে পাশে বসিয়ে সাংসদ জয়ন্ত বলেন, ‘‘হলদিবাড়ি স্টেশন থেকে দার্জিলিং মেলের সংযোগকারী কোচ তুলে নেওয়া হচ্ছে না। বরং পুরো ট্রেনটি যাতে হলদিবাড়ি স্টেশন থেকে চালানো যায়, সেই বিষয়ে রেল মন্ত্রকের দ্বারস্থ হয়েছি। আশা করছি, দ্রুত গোটা দার্জিলিং মেলটি প্রাচীন ঐতিহ্য বজায় রেখে হলদিবাড়ি থেকেই চলবে। এছাড়া, বাংলাদেশের সঙ্গে যাতে দ্রুত রেল যোগাযোগ চালু করা যায় সেই বিষয়ে সচেষ্ট হব।’’

হলদিবাড়ির প্রবীণ নাগরিক তথা প্রাক্তন রেলওয়ে ট্র্যাফিক ইনস্পেক্টর সত্যরঞ্জন রক্ষিত জানান, দার্জিলিং মেলের সঙ্গে ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে রয়েছে হলদিবাড়ির অতীত ইতিহাস। হলদিবাড়ি শহর গড়ে ওঠার পিছনে রয়েছে হলদিবাড়ি রেল স্টেশনের অপরিসীম গুরুত্ব। দার্জিলিং মেলে হল পূর্ব ভারতের ঐতিহ্যবাহী ট্রেন। এই ট্রেনটির পথ চলা শুরুর সময় ট্রেন চলত শিয়ালদহ থেকে রানাঘাট, ভেড়ামারা, হার্ডিঞ্জ ব্রিজ, ঈশ্বরদী, সান্তাহার, হিলি, পার্বতীপুর, নীলফামারী, হলদিবাড়ি, জলপাইগুড়ি হয়ে শিলিগুড়ি রুটে। তিনি আরও জানান, স্বাধীনতার পরও কয়েক বছর ধরে এই রুট দিয়েই চলাচল করেছে ট্রেনটি। রুট পরিবর্তন হলেও পরাধীন ভারতে চালু হওয়া এই ট্রেন আজও চলমান।

ব্রিটিশ আমল থেকেই এটি উত্তরবঙ্গের সঙ্গে দক্ষিণবঙ্গে সংযোগকারী প্রধান ট্রেন এটি। গনিখান চৌধুরী রেলমন্ত্রী থাকা কালীন গোটা দার্জিলিং মেলটি হলদিবাড়ি থেকেই যাতায়াত করত। পরবর্তীকালে ঐতিহ্য বজায় রাখতে এই দার্জিলিং মেলের একটি এসি ও একটি স্লিপার কোচ হলদিবাড়ি থেকেই যাতায়াত করছে।

ডিআরএম রবীন্দ্র বলেন, ‘‘৬৫ কোটি টাকা ব্যয়ে হলদিবাড়ি স্টেশনকে ঢেলে সাজা হয়েছে। কাজ প্রায় ৯৮ শতাংশ শেষ হয়েছে। দার্জিলিং মেলের কোচ উঠছে না। গোটা ট্রেনটি হলদিবাড়ি থেকে ছাড়া যায় কিনা সেই বিষয়ে আলোচনা শুরু করেছে রেল মন্ত্রক। এছাড়াও গুড্স সার্কুলেটিং এরিয়া হলদিবাড়িতেই হচ্ছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement