Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৩ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

গৌড়বঙ্গে কড়া পদক্ষেপ হচ্ছে

পরীক্ষার ১০৫ দিন পর ফল প্রকাশ এবং সেই প্রকাশিত ফলাফল নাকি পুরোপুরিই ভুলেভরা— এমনই দুই অভিযোগে লাগাতার ছাত্র বিক্ষোভে বারবার উত্তাল হচ্ছে গৌড

নিজস্ব সংবাদদাতা
মালদহ ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ ০২:৪২
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করার নির্দেশ দিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। মন্ত্রী উপাচার্যকে সে কথা জানানোর পর সোমবার রাতেই ইংরেজবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তদন্তও শুরু করেছে পুলিশ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে পুলিশ দোষীদের চিহ্নিত করার দিকে এগোচ্ছে। এদিকে সম্প্রতি প্রকাশিত স্নাতক স্তরের প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের ফলাফলে ভুলের অভিযোগ এবং তা নিয়ে পড়ুয়াদের অসন্তোষের জন্য আজ বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন নয়া উপাচার্য। সূত্রে খবর, পরীক্ষার ফলাফল কেন এমন হল, তা খতিয়ে দেখতে সেই বৈঠকে একটি তদন্ত কমিটি গঠনেরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। শুধু তাই নয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে থাকা প্রতিটি কলেজের অধ্যক্ষদের নিয়েও বুধবার আরও একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করবেন উপাচার্য। প্রকাশিত ওই ফল বাতিল করার দাবিতে আজ বুধবার ফের বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ দেখানোর কথা রয়েছে পড়ুয়াদের।

পরীক্ষার ১০৫ দিন পর ফল প্রকাশ এবং সেই প্রকাশিত ফলাফল নাকি পুরোপুরিই ভুলেভরা— এমনই দুই অভিযোগে লাগাতার ছাত্র বিক্ষোভে বারবার উত্তাল হচ্ছে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়।

Advertisement

কিন্তু সোমবার বিক্ষোভকারী পড়ুয়াদের একাংশ উত্তেজিত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাঙচুর চালায়। ওই ভাঙচুরের ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেকেই নিরাপত্তার অভাবে ভুগছেন। বিশেষ করে, বুধবার ফের পড়ুয়ারা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসছেন বলে আগাম জানিয়ে যাওয়ায় আতঙ্ক আরও বেড়েছে।

সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাঙচুরের পর গোটা ঘটনাটি নয়া উপাচার্য স্বাগত সেনকে জানান কর্তৃপক্ষ। উপাচার্য তা জানান শিক্ষামন্ত্রীকে। সব কিছু শুনে শিক্ষামন্ত্রী এই ঘটনায় কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ দেন। এরপরই উপাচার্যের নির্দেশে রেজিস্ট্রার দফতরের দেখভালের দায়িত্বে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন আধিকারিক রাজীব পুততুণ্ড ইংরেজবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, সিসিটিভির ফুটেজ কিন্তু মঙ্গলবার পর্যন্ত তারা পায়নি। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সিসিটিভির ফুটেজ একমাত্র উপাচার্যের ঘরেই রয়েছে। উপাচার্য এ দিন ছিলেন না। কলকাতা থেকে তিনি এ দিন রাতে ফিরেছেন মালদহে, সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকবেন।

উপাচার্য স্বাগতবাবু বলেন, ‘‘সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনা জানার পরই বিষয়টি শিক্ষামন্ত্রীকে জানিয়েছি। তিনি কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছেন। থানায় অভিযোগ জানানোও হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আমরা বাড়াতে চাইছি।’’

এদিকে বিক্ষোভকারী পড়ুয়াদের একাংশ জানিয়েছেন, ফলাফল নিয়ে তাঁদের সমস্যা মেটেনি। বিহিত চাইতে বুধবার তারা উপাচার্যের কাছে যাবেন। উপাচার্য সমস্যার কথা না শুনলে ফের আন্দোলন হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement