Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

রাজবংশী উন্নয়নে বার্তা চায় দু’পক্ষই

প্রধানমন্ত্রীর সভার আগে উন্নয়ন-বার্তার আশায় গ্রেটারের দুই গোষ্ঠীই।

নমিতেশ ঘোষ
কোচবিহার ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ০৩:১০
Save
Something isn't right! Please refresh.
গ্রেটার কোচবিহার নিয়ে মোদীর বার্তার অপেক্ষায় নেতারা।

গ্রেটার কোচবিহার নিয়ে মোদীর বার্তার অপেক্ষায় নেতারা।

Popup Close

প্রধানমন্ত্রীর সভার আগে উন্নয়ন-বার্তার আশায় গ্রেটারের দুই গোষ্ঠীই।

আজ, শুক্রবার ময়নাগুড়িতে সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গতবার বিধানসভা নির্বাচনের মুখে মাদারিহাটের বীরপাড়ায় সভা করেন প্রধানমন্ত্রী। সে সময় তাঁর পাশেই বসেছিলেন গ্রেটার কোচবিহার পিপলস অ্যাসোসিয়েশনের নেতা অনন্ত রায় (মহারাজ)। এবার অবশ্য এখনও তাঁর দেখা নেই। তাঁর সংগঠনের নেতারাও এই ব্যাপারে পুরোপুরি চুপ। তার পরেও গ্রেটার সমর্থক থেকে নেতারা আশা করছেন প্রধানমন্ত্রী তাঁদের জন্য নিয়ে আসবেন কোনও উপহারের ডালি। তাঁরা চাইছেন, ভারত ভুক্তি চুক্তি বা গ্রেটারদের সমর্থনে কিছু বলুন প্রধানমন্ত্রী।

উল্টোদিকে, গ্রেটার কোচবিহারের পিপলস অ্যাসোসিয়েশনের আরেক নেতা বংশীবদন বর্মণ অবশ্য মনে করেন, প্রধানমন্ত্রী রাজনৈতিক সমর্থনেই উত্তরবঙ্গ সফরে রয়েছেন। তার পরেও তাঁর আশা, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পথে হেঁটেই প্রধানমন্ত্রী রাজবংশী উন্নয়নে ঘোষণা করবেন কিছু।

Advertisement

বিজেপি নেতারা অবশ্য বিষয়টি কিছুটা ধোঁয়াশা রেখেছেন। বিজেপির কোচবিহার জেলা সভানেত্রী মালতী রাভা বলেন, “এই বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছু বলা সম্ভব নয়। তাঁরা থাকতেও পারেন এই অনুষ্ঠানে।” বিজেপির জলপাইগুড়ির পর্যবেক্ষক দীপ্তিমান সেনগুপ্ত অবশ্য জানিয়েছেন, ওই অনুষ্ঠানে গ্রেটার নেতাদের থাকার বিষয় নেই। তিনি বলেন, “এটা কোনও নির্বাচনী অনুষ্ঠান নয়। এটা দলীয় সভা। তাই এখানে আঁতাতের কোনও বিষয় নেই। গ্রেটার নেতাদের কেউ থাকার বিষয়ও নেই।” তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিজেপি নেতার দাবি, প্রধানমন্ত্রী রাজবংশী সহ সমাজের সকলস্তরের মানুষের জন্য উন্নয়নের বার্তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী। তৃণমূল অবশ্য বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে নারাজ। তৃণমূলের কোচবিহার জেলা সভাপতি, উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন, “বিজেপি সাম্প্রদায়িক দল। সব জায়গায় আইনশৃঙ্খলার অবনতির চেষ্টা করছেন তারা। তাদের কথার গুরুত্ব নেই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement