×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ জুন ২০২১ ই-পেপার

শহরের পথে দেব, বিপ্লব 

নিজস্ব সংবাদদাতা
কালিয়াগঞ্জ ২৪ নভেম্বর ২০১৯ ০৪:১০
পথে: দলীয় প্রার্থীর প্রচারে তৃণমূল সাংসদ দেব,  কালিয়াগঞ্জে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। ছবি: চিরঞ্জীব দাস

পথে: দলীয় প্রার্থীর প্রচারে তৃণমূল সাংসদ দেব, কালিয়াগঞ্জে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। ছবি: চিরঞ্জীব দাস

‘‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে পুলিশ আমাকে কালিয়াগঞ্জে রোড-শো করার অনুমতি দেয়নি’’— শনিবার সকালে রায়গঞ্জে সাংবাদিক বৈঠকে এমনই অভিযোগ তুলেছিলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। তিনি দাবি করেছিলেন, পুলিশের অনুমতি না থাকায় তিনি কালিয়াগঞ্জে রোড-শো করবেনও না। কিন্তু অভিযোগ, এ দিন দুপুরে কালিয়াগঞ্জ শহরে হুডখোলা গাড়িতে ‘রোড-শো’ করেন বিপ্লব। তার জেরে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে। যদিও স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের বক্তব্য, রোড-শো নয়, শহরে দলের প্রতিবাদ মিছিল ছিল। তাতেই শামিল হন বিপ্লব।

অন্য দিকে, এ দিন বিকেলে তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেতা দেবের রোড-শো ঘিরে কালিয়াগঞ্জ শহরের বিভিন্ন এলাকার রাস্তায় জনস্রোত আছড়ে পড়ে।

প্রচারের শেষ দিনে ভোটের ময়দানে যুযুধান দুই দলের দুই ‘হেভিওয়েট’ প্রার্থীর প্রচার ঘিরে দিনভর এ ভাবেই সরগরম হয়ে ওঠে কালিয়াগঞ্জ শহর।

Advertisement

এ দিন সকালে রায়গঞ্জে সাংবাদিক বৈঠকে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘‘পুলিশ আমাকে রোড-শো করার অনুমতি দেয়নি। কিন্তু এ ভাবে এ রাজ্যে বিজেপিকে আটকানো যাবে না। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূলের উপরে সাধারণ মানুষের আর আস্থা নেই। বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে কালিয়াগঞ্জের মানুষ তার যোগ্য জবাব দেবেন।’’

বিজেপি সূত্রে খবর, এ দিন দুপুরে বিপ্লব কালিয়াগঞ্জ শহরে পৌঁছন। এর পরে তিনি শহরের বিবেকানন্দ মোড় লাগোয়া এলাকা থেকে হুডখোলা গাড়িতে উঠে বয়রা কালীবাড়ি মোড় পর্যন্ত দলীয় প্রার্থী কমল সরকারের সমর্থনে প্রচার চালান। প্রচার ঘিরে জমে ভিড়।

তবে বিজেপির উত্তর দিনাজপুর জেলা সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ লাহিড়ীর বক্তব্য, ‘‘পুলিশ রোড-শোয়ের অনুমতি না দেওয়ায় এ দিন কালিয়াগঞ্জ শহরে দলের প্রতিবাদ মিছিল হয়। বিপ্লববাবু হুডখোলা গাড়িতে ওই প্রতিবাদ মিছিলেই শামিল হয়েছিলেন।’’

জেলাশাসক তথা জেলা নির্বাচনী আধিকারিক অরবিন্দকুমার মিনা বলেন, ‘‘কালিয়াগঞ্জে বিজেপি পুলিশ-প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই রোড-শো করেছে বলে রিপোর্ট পেয়েছি। নির্বাচন আইন মেনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’

রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার সুপার সুমিত কুমারের বক্তব্য, ‘‘বিজেপির আগে তৃণমূল এ দিন শহরে রোড-শো করার অনুমতি নিয়েছিল। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় বিজেপিকে অন্য রুটে রোড-শো করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বিজেপি নেতৃত্বে সেই প্রস্তাব মানেননি।’’

অন্য দিকে, এ দিন বিকেলে তৃণমূল প্রার্থী তপন দেবসিংহের সমর্থনে শহরের শিমুলতলা থেকে হুডখোলা গাড়িতে রোড-শো শুরু করেন দলীয় সাংসদ তথা অভিনেতা দেব। শেঠকলোনি, গুপ্তপাড়া মোড়, গুদরিবাজার, কালীবাড়ি, সুকান্তমোড় হয়ে বিবেকানন্দ মোড় এলাকায় পৌঁছে রোড-শো শেষ হয়। স্থানীয় সূত্রে খবর, দেবকে দেখতে শহরের বিভিন্ন এলাকার রাস্তায় ভিড় জমে। দেব বলেন, ‘‘বিজেপির এনআরসি-র প্রতিবাদ ও কালিয়াগঞ্জের সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে তপনদাকে জেতান।’’

কালিয়াগঞ্জের তৃণমূলের নির্বাচনী পর্যবেক্ষক গোলাম রব্বানি বলেন, ‘বিজেপি মিথ্যাচারের রাজনীতি করে কালিয়াগঞ্জে জিততে পারবে না।’’

Advertisement