Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ব্যবসায়ী নিখোঁজ পঞ্জাবে, ভয়ে পরিবার

পঞ্জাবে ছোট্ট দোকানের মালিক কোচবিহারের বাসিন্দা আব্দুর কাদের খন্দকার। অভিযোগ, বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী তাঁকে বাইকে চাপিয়ে বাজার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কোচবিহার ২০ জানুয়ারি ২০১৮ ০১:৫৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

Popup Close

রাজস্থানে মালদহের এক শ্রমিককে খুনের দৃশ্য এখনও দগদগে মানুষের মনে। তার মধ্যেই কোচবিহারের এক বাসিন্দা পঞ্জাবে নিখোঁজ হওয়ায় আতঙ্কিত পরিবার-সহ গোটা জেলা।

পঞ্জাবে ছোট্ট দোকানের মালিক কোচবিহারের বাসিন্দা আব্দুর কাদের খন্দকার। অভিযোগ, বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী তাঁকে বাইকে চাপিয়ে বাজারে নামিয়ে দেওয়ার কথা বলে দোকান থেকে নিয়ে যান। তার পর থেকেই খোঁজ নেই কাদেরের। তাঁর মোবাইলও বন্ধ। পঞ্জাবের আম্বালা ঘঘোরি থানায় অভিযোগ করেছেন নিখোঁজের ভাই আবুয়াল রহমান।

উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী কোচবিহারের বাসিন্দা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। তিনি জেলা প্রশাসনকে ওই ব্যাপারে পঞ্জাবের ওই জেলার সঙ্গে যোগাযোগ করে খোঁজ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, “কোনও মতেই মেনে নেওয়া যায় না। ভিনরাজ্যে আমাদের রাজ্যের শ্রমিক আক্রান্ত হচ্ছেন। দেশের যে কোনও জায়গায় কাজ করতে পারেন যে কোনও রাজ্যের বাসিন্দা। আশা করব ওই রাজ্যের প্রশাসন ও পুলিশ দ্রুত ব্যবস্থা নেবে।”

Advertisement

কোচবিহারের সাংসদ পার্থপ্রতিম রায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “খোঁজখবর নেব। ওই পরিবারের সঙ্গে কথা বলব। প্রয়োজনে মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করব।”

পরিবারের সদস্যরা জানান, বারো বছরের বেশি সময় ধরে ভিনরাজ্যে কাজ করেন আব্দুর কাদের। একটি নির্মাণ কোম্পানির সঙ্গে তিনি ঘুরে বেড়ান। যেখানে যেখানে কাজ করেন সেখানে ছোট দোকান করেন তিনি। সঙ্গে তাঁর স্ত্রীও থাকেন। তাঁর ভাই, আত্মীয়দের বেশ কয়েক জনও ওই নির্মাণ কোম্পানিতেই কাজ করেন। মাস ছয়েক ধরে আম্বালায় ওই নির্মাণ কোম্পানির অস্থায়ী ক্যাম্পের মধ্যেই দোকান করেছিলেন কাদের।

তাঁর ভাই আবুয়াল জানান, কোম্পানিকে দু’হাজার টাকার ভাড়ার বিনিময়ে দোকান করার অনুমতি মেলে। বিক্রি যা হয় তাতে সংসার চলে। ওই এলাকায় কাদেরের দোকানের পাশেই স্থানীয় এক বাসিন্দাও দোকান দেন। স্থানীয় দোকানীর ব্যবসা তেমন না জমায় কাদেরের উপর রাগ ছিল তাঁর। বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টা নাগাদ দোকানের জিনিসপত্র কিনতে স্থানীয় বাজারে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন কাদের। সেই সময় পাশের দোকানি তাঁকে বাইকে করে বাজারে নামিয়ে দেওয়ার কথা বলে নিয়ে যায়। তার পর থেকে আর কোনও হদিস মেলেনি তাঁর। আবুয়াল বলেন, “ওই দোকানদার বলছেন তাঁকে বাজারে নামিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু তাঁর কথা বিশ্বাস করা যাচ্ছে না। এর পিছনে কোনও চক্রান্ত আছে বলে মনে করছি। পুলিশ এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে দাদাকে ফেরানোর ব্যবস্থা করুক।”



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement