Advertisement
২২ জুন ২০২৪

উইলসনে অনীহা দলে

২০০৯ সালে কালচিনিতে বিধানসভার উপ নির্বাচনে প্রথমবার গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সমর্থন নিয়ে নির্দল প্রার্থী হয়ে জয়লাভ করেছিলেন উইলসন।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

পার্থ চক্রবর্তী
আলিপুরদুয়ার শেষ আপডেট: ১১ জুন ২০১৯ ০২:৩৬
Share: Save:

আত্মীয়ের অসুস্থতার জন্য দিল্লি ছুঁয়ে দেহরাদুন যেতে হচ্ছে বলে দাবি কালচিনির বিধায়ক উইলসন চম্প্রামারির৷ প্রকাশ্যে তাঁর এও দাবি, তিনি এখনও তৃণমূলেই রয়েছেন৷ কিন্তু কালচিনির বিধায়ক বিজেপি-তে যেতে চাইছেন ধরে নিয়ে তাঁকে নিয়ে তীব্র অনীহা প্রকাশ করে তৃণমূলের রাজ্য নেতৃত্বের কাছে নালিশ করলেন আলিপুরদুয়ার জেলা নেতৃত্ব। তাঁকে নিয়ে দলের রাজ্য নেতৃত্বের কাছে একটি রিপোর্টও পাঠিয়েছেন তাঁরা৷

২০০৯ সালে কালচিনিতে বিধানসভার উপ নির্বাচনে প্রথমবার গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সমর্থন নিয়ে নির্দল প্রার্থী হয়ে জয়লাভ করেছিলেন উইলসন। ২০১১ সালেও নির্দল প্রার্থী হিসাবেই জয়লাভ করেন তিনি৷ কিন্তু পরবর্তীতে তৃণমূলে যোগ দেন তিনি৷ ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের টিকিটেই ভোটে লড়ে জেতেন তিনি৷

কিন্তু লোকসভা নির্বাচনে আলিপুরদুয়ার কেন্দ্রে তৃণমূলের ভরাডুবির পরে গত কয়েক দিন থেকে উইলসন বিজেপি-তে যোগ দিতে চলেছেন বলে চাউর হতে শুরু করে৷ গত কয়েক দিনে তাকে দলের কোন কর্মসূচি তো বটেই, এমনকি আলিপুরদুয়ারেও তাঁকে দেখা যায়নি৷ এই অবস্থায় দিন তিনেক আগে তৃণমূলের জেলা সভাপতি মোহন শর্মাও জানিয়ে দিয়েছিলেন, ‘‘শুনেছি, উইলসন বিজেপি-তে যোগ দিতে দিল্লি গিয়েছেন৷’’ একই সুরে বিজেপির জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাও জানিয়ে ছিলেন, কালচিনির বিধায়ক দিল্লি থেকে বিজেপিতে যোগ দেবেন বলে তাঁদের কাছেও খবর রয়েছে৷

তবে রটনা বন্ধ না হলেও, গত তিন দিনে উইলসনের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কোনও খবর নেই৷ বরং, রবিবার ফোনে তিনি দাবি করেন, “আমি তৃণমূলেই রয়েছি৷ এক আত্মীয়ের অসুস্থতার জন্য দিল্লির উপর দিয়ে দেহরাদুন যাচ্ছি৷” তৃণমূল সূত্রের খবর, গত দু’দিনে দলের একাধিক জেলা নেতার সঙ্গেও যোগাযোগ করেছেন তিনি৷ কিন্তু তাতেও অবশ্য এখনই চিড়ে ভিজছে না৷

বরং উইলসন বিজেপি-তে যেতে চাইছেন বলে ধরে নিয়ে তাঁর প্রতি তীব্র অনীহা প্রকাশ করে দলের রাজ্য নেতৃত্বের কাছে নালিশ করলেন তৃণমূলের জেলা শীর্ষ নেতৃত্ব৷ দলের জেলা সভাপতি মোহন শর্মা বলেন, “উইলসন কোথায় আছে জানি না৷ গত কয়েকদিনে উনি কোথায় কি করেছেন তার সব রিপোর্ট রাজ্য নেতৃত্বকে পাঠিয়েছি৷”

সূত্রের খবর, উইলসনকে নিয়ে রটনা শুরু হতেই তা নিয়ে বিজেপির অন্দরে তীব্র বিরোধিতা শুরু করেছিলেন দলেরই নেতাদের একাংশ৷

তবে দলের জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মা বলেন, “আমরাও শুনেছিলাম উনি বিজেপিতে যোগ দিতে দিল্লি গিয়েছেন৷ তবে বিধায়কের দলের যোগদানের বিষয়টি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব দেখেন৷ তাঁরা যা সিদ্ধান্ত নেবেন, সেটাই হবে৷”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Wilson Champramary TMC
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE