×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

নিশীথের ‘দুর্গে’ উদয়ন, তির পুলিশকে

নিজস্ব সংবাদদাতা
দিনহাটা ১৫ জানুয়ারি ২০২১ ০১:৩৫
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকের দুর্গ বলে পরিচিত ভেটাগুড়ির বিভিন্ন এলাকায় জনসংযোগ যাত্রায় শামিল হলেন তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ। পাশাপাশি বৃহস্পতিবার ফেসবুক পোস্টে তিনি লেখেন— ‘আজ ভেটাগুড়িতে ঘুরে শুনলাম মানুষের উপর কী ভাবে অত্যাচার করছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। কী করছে পুলিশ? তাদের কাজ কী শুধু তৃণমূল নেতা পেটানো?’’ পুলিশের বিরুদ্ধে খোদ শাসকদলের বিধায়কের এমন পোস্ট ঘিরে প্রশ্ন উঠেছে। এ দিন গ্রাম পঞ্চায়েতের বিভিন্ন বুথে জনসংযোগ যাত্রা চলাকালীন বিজেপি দলের বেশ কিছু কর্মী-সমর্থক তৃণমূলে যোগ দেন বলে দাবি করেন নেতৃত্ব। তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন উদয়ন। বিধায়কের জনসংযোগ যাত্রায় গোলমাল এড়াতে ছিল পুলিশি নিরাপত্তা। বিধায়কের সঙ্গে ছিলেন দলের জেলা সভাপতি পার্থপ্রতিম রায়, দিনহাটা এক বি ব্লক সভাপতি বিশ্বনাথ দে আমিন, অনন্ত বর্মণ প্রমুখ।

বিজেপির কোচবিহার জেলা সম্পাদক সুদেব কর্মকার বলেন, ‘‘জনসংযোগের নামে বিধায়ক ভেটাগুড়ির বিভিন্ন এলাকায় সাধারণ মানুষকে নানা ভাবে ভয় দেখানোর চেষ্টা করছে। এতে কোনও লাভ হবে না।"

কয়েক দিন আগে ভেটাগুড়ি ফুটবল মাঠে তৃণমূলের সভায় উদয়ন অভিযোগ করেছিলেন, ভেটাগুড়ি ১ গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান রতন বর্মণের নেতৃত্বে নানা ভাবে সন্ত্রাস শুরু হয়েছে। শান্তি ফিরিয়ে আনতে বিভিন্ন এলাকায় জনসংযোগ যাত্রায় সামিল হওয়ার কথা সে দিনই জানিয়েছিলেন তিনি। এ দিন সকাল থেকে ভেটাগুড়ি ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের শালমারা, রুইয়ের কুঠি, চণ্ডীপাড়া, খারিজা বালাডাঙ্গা গ্রামে গিয়ে জনসংযোগ যাত্রায় সামিল হন।

Advertisement

উদয়ন বলেন, ‘‘অনেক বাড়িতে দেখলাম, কী ভাবে সেখানে ভাঙচুর করা হয়েছে। বিজেপির নাম করে কিছু দুষ্কৃতী জুলুম করছে সাধারণ মানুষের উপরে। দিনহাটার পুলিশ কী করছে। অপরাধ করলেও পুলিশ কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ায় সাহস পাচ্ছে সমাজবিরোধীরা।’’

Advertisement