Advertisement
৩১ জানুয়ারি ২০২৩
Suvendu Adhikari

‘আয়কর হানার হুমকি’! শুভেন্দুর বিরুদ্ধে আনা স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাব গ্রহণ করলেন স্পিকার

শুভেন্দুর বিরুদ্ধে অভিযোগ করা চার বিধায়কই বিজেপি-র টিকিটে বিধানসভা নির্বাচনে জেতেন। কিন্তু পরবর্তীতে তৃণমূলের কাছাকাছিই তাঁরা থাকছেন।

শুভেন্দু অধিকারী এবং বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

শুভেন্দু অধিকারী এবং বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৭ মার্চ ২০২২ ১২:৪৬
Share: Save:

বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাব গ্রহণ করলেন বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। চার বিধায়ক বুধবার আলাদা আলাদা ভাবে অভিযোগ জানিয়েছিলেন, বিধানসভায় দাঁড়িয়ে তাঁদের বিরুদ্ধে আয়কর হানার বন্দোবস্ত করার হুমকি দিয়েছেন শুভেন্দু। দিয়েছেন খুনের হুমকিও। বৃহস্পতিবার অধিবেশনের শুরুতেই স্পিকার জানিয়ে দেন, বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ তাঁর কাছে জমা পড়েছে। স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাবটি তিনি গ্রহণ করেছেন। শুভেন্দু অবশ্য বুধবারই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেন।

Advertisement

শুভেন্দুর বিরুদ্ধে অভিযোগ করা চার বিধায়ক হলেন বাগদার বিশ্বজিৎ দাস, বড়জোড়ার তন্ময় ঘোষ, রায়গঞ্জের কৃষ্ণ কল্যাণী এবং কালিয়াগঞ্জের সৌমেন রায়। এঁরা চারজনই বিজেপি-র টিকিটে বিধানসভা নির্বাচনে জেতেন। কিন্তু পরবর্তীতে তৃণমূলের কাছাকাছিই তাঁরা থাকছেন।

ওই চার বিধায়ক দাবি করেছিলেন, বুধবার মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতা চলাকালীন বারবার বাধা দিচ্ছিলেন বিরোধী দলনেতা। এর প্রতিবাদ করেছিলেন তাঁরা। বাকবিতণ্ডা চলে। পরে শুভেন্দুর নেতৃত্বে ওয়াকআউট করেন বিজেপি বিধায়করা। চার বিধায়কদের অভিযোগ, অধিবেশন ছাড়ার সময় বিরোধী দলনেতা তাঁদের উদ্দেশ্য করে বলে যান— ‘তোমাদের আয়করের নোটিশ পাঠানোর বন্দোবস্ত করছি’। এর পর মেরে ফেলার হুমকি দেন বলেও অভিযোগ।

বুধবারের অধিবেশনেই শুভেন্দুর বিরুদ্ধে হুমকির অভিযোগ আনেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। পরে স্পিকারের কাছে একই অভিযোগ করেন বাকি তিনজনও। স্পিকার তাঁদের লিখিত ভাবে অভিযোগ করতে নির্দেশ দেন। লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে স্বাধিকারভঙ্গের নোটিস গ্রহণ করেছেন তিনি। এ বার বিষয়টি বিধানসভার স্বাধিকাররক্ষা কমিটির কাছে পাঠানো হবে। সেখানেই চার বিধায়ককে নিজেদের অভিযোগের পক্ষে এবং বিরোধী দলনেতাকে তাঁর আত্মপক্ষ সমর্থনে প্রমাণ দিতে হবে। তার ভিত্তিতেই বিষয়টির নিষ্পত্তি হবে বলে বিধানসভা সূত্রে খবর।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.