Advertisement
১৪ এপ্রিল ২০২৪
Sandeshkhali Incident

সন্দেশখালি থানার সামনে অবস্থান বিক্ষোভ থেকে গ্রেফতার সুকান্ত, পরে জামিনে মুক্তি দিল পুলিশ

সন্দেশখালি থানার সামনে থেকে সুকান্ত মজুমদারদের সরিয়ে দিল পুলিশ। রাজ্য বিজেপির সভাপতিকে নিয়ে যাওয়া হয় ফেরিঘাটের দিকে। সুকান্তকে আটক না গ্রেফতার করা হয়েছে, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জল্পনা।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
সন্দেশখালি শেষ আপডেট: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৮:৪০
Share: Save:

সন্দেশখালি থানার সামনে অবস্থান বিক্ষোভ থেকে গ্রেফতার সুকান্ত মজুমদার। সেখান থেকে রাজ্য বিজেপির সভাপতিকে সরিয়ে লঞ্চে করে পুলিশ নিয়ে গেল ধামাখালিতে। নদীতে এই যাত্রার সময়েই ব্যক্তিগত জামিনে মুক্তি দেওয়া হয় সুকান্তকে। সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘‘পুলিশ আমাকে গ্রেফতার করেছিল। জামিনে মুক্তিও দিয়েছে। কিন্তু আমি এখন কোথাও নড়ব না। আমার দলের কর্মী-সমর্থকেরা যত ক্ষণ না আসবে, আমি কলকাতা ফিরব না।’’

বৃহস্পতিবার বিকেলে সন্দেশখালিতে বিজেপি নেতা বিকাশ সিংহের বাড়িতে গিয়েছিলেন সুকান্ত। বিকাশ সন্দেশখালিকাণ্ডে গ্রেফতার হয়েছেন আগেই। তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করে সন্ধ্যায় সন্দেশখালি থানার সামনে অবস্থানে বসেন সুকান্ত। স্থানীয় সূত্রে খবর, ঘণ্টাখানেক ধর্না অবস্থান চলার পরেই ১৪৪ ধারার কারণ দেখিয়ে অবস্থান তুলে নিতে বলে পুলিশ। সেই সময় পুলিশের সঙ্গে স্থানীয়দের বচসা শুরু হয়। তার মাঝেই পুলিশ সুকান্তকে সেখান থেকে টেনে সরিয়ে টোটোয় করে ফেরিঘাটের দিকে নিয়ে যায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, লঞ্চে করে বিজেপি নেতাকে ধামাখালি নিয়ে গিয়েছে পুলিশ।

আট দিন আগে সন্দেশখালিতে যেতে গিয়ে টাকিতে পুলিশি বাধা মুখে পড়েছিলেন সুকান্ত। ধস্তাধস্তিতে অসুস্থও হয়ে পড়েছিলেন তিনি। হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল তাঁকে। সুস্থ হওয়ার পর বুধবার আবার সন্দেশখালি আসেন তিনি। প্রথমে তিনি বসিরহাট উপসংশোধনাগারে গিয়েছিলেন। সন্দেশখালিকাণ্ডে গ্রেফতার হওয়া বিজেপি কর্মীদের সেখানেই রাখা হয়েছে। তাঁদের সঙ্গে দেখা করেন সুকান্ত। জেল থেকে বেরিয়ে সন্দেশখালির উদ্দেশে রওনা দেন।

এর পর ধামাখালিতে সুকান্তকে আবার আটকায় পুলিশ। তাঁকে দল বেঁধে সন্দেশখালিতে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়নি। অন্তত এক জন দলীয় কর্মীকে তিনি সঙ্গে নিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ অনুমতি না দেওয়ায় নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে নিয়ে তিনি একাই যান।

সন্দেশখালি পৌঁছে প্রথমেই বিকাশের পরিবারের সঙ্গে সুকান্ত দেখা করেন। সেখান থেকে বেরিয়ে থানার দিকে যান। থানার ওসির সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলেন তিনি। জানান, কেন তাঁদের দলের কর্মীদের ‘বিনা দোষে’ ‌আটকে রাখা হয়েছে, সেই প্রশ্ন তিনি পুলিশকে করতে চান। কিন্তু থানা পর্যন্ত যাওয়ার আগেই ব্যারিকেড করে দেয় পুলিশ। তার সামনে সুকান্ত বসে পড়েন। তিনি বলেন, ‘‘শাহজাহানকে গ্রেফতার করতে হবে। আমাদের কর্মীদের মুক্তি দিতে হবে। ডিজি এখানে রাত কাটিয়েছেন। প্রয়োজনে আমিও রাতভর এখানে বসে থাকব।’’ এর কিছু ক্ষণ পরেই পুলিশ আধিকারিকেরা গিয়ে সুকান্তকে অবস্থান তুলে নেওয়ার জন্য বলেন। তার পরেই ওই ঘটনা।

বিজেপি সূত্রে খবর, সন্দেশখালি থেকে কলকাতা ফিরে সোজা রাজভবনে যাওয়ার কথা সুকান্তের।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Sandeshkhali Incident
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE