×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না বিশ্বভারতীর, এ বার ভাষা দিবসের অনুষ্ঠানে প্রথা ভাঙার অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা
বোলপুর ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০০:০৮
বরাবরই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বেফাঁস মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীকে।

বরাবরই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বেফাঁস মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীকে।
নিজস্ব চিত্র

ফের বিতর্কে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়। এ বার ভাষা দিবসের সমাপ্তি অনুষ্ঠানে ঐতিহ্য মেনে গাওয়া হল না ‘আশ্রম সঙ্গীত’। আর তাই নিয়ে নিন্দায় শান্তিনিকেতন প্রেমী মানুষেরা৷ বিশ্বভারতীর ঐতিহ্য ও রীতি হল প্রত্যেক অনুষ্ঠানের শেষে গাওয়া হয় ‘আশ্রম সঙ্গীত’, তারপরই শেষ হয় অনুষ্ঠান। কিন্ত রবিবার ভাষা দিবসের অনুষ্ঠানে সেই রীতি ভঙ্গ হলো। গাওয়া হল না আশ্রম সঙ্গীত। আর এতেই নিন্দার ঝড় শান্তিনিকেতন প্রেমী মানুষদের মধ্যে। বিতর্ক বাড়িয়ে উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী বললেন, ‘‘গুরুদেবের সময়েও যে সোনার বিশ্বভারতী ছিল তা নয়। তখনও শয়তানের আবেশ ছিল।"

বরাবরই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বেফাঁস মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীকে। এ বারও তার ব্যতিক্রম হল না৷ রবিবার বিশ্বভারতীর রতনপল্লীর রামকিঙ্কর মঞ্চে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠান ছিল৷ সেখানে দেওয়া ভাষণে উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী বলেন, ‘‘আমি যে কথাগুলো বা যে সমস্যাগুলো বলি, তার জন্য অনেকেই আমার সমালোচনা করেন৷ কিন্তু, এই একটা কথাও আমার কথা নয়৷ গুরুদেবও তখন ভেবেছিলেন। অর্থাৎ গুরুদেবের সময়েও যে সবটা সোনার বিশ্বভারতী ছিল তা নয়৷ সেই সময়েও শয়তানের আবেশ ছিল।’’

Advertisement
Advertisement