Advertisement
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
West Bengal Panchayat Election 2023

ভোটে হানাহানি নয়, বাইকে ঘুরে বার্তা যুবকের

ওড়িশায় একটি দোকানের কর্মী সুরেন্দ্র ভোটে বাড়ি ফিরেছেন। তবে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর বালাই নেই। সকালেই বাইক নিয়ে বেরোচ্ছেন এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে।

শান্তির বার্তা নিয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরছেন বাঘমুন্ডির যুবক | দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায় |

শান্তির বার্তা নিয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরছেন বাঘমুন্ডির যুবক | দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায় |

দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায় 
বাঘমুণ্ডি শেষ আপডেট: ০৭ জুলাই ২০২৩ ০৫:৪৫
Share: Save:

মোটরবাইকের চারদিকে বাঁধা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পতাকা। তা নিয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরে ভোটে হানাহানি রুখতে, ভেবে-চিন্তে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার বার্তা দিচ্ছেন বাঘমুণ্ডির বীরগ্রামের যুবক সুরেন্দ্রমোহন রজক। ভোটের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলির নেতা-কর্মীদের মধ্যে আকচা-আকচি থেকে সংঘর্ষের ঘটনা যখন চর্চার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়, তখন সুরেন্দ্রর এই প্রচার নজর কাড়ছে।

ওড়িশায় একটি দোকানের কর্মী সুরেন্দ্র ভোটে বাড়ি ফিরেছেন। তবে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর বালাই নেই। সকালেই বাইক নিয়ে বেরোচ্ছেন এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে। যেখানেই যাচ্ছেন, রঙিন পতাকায় মোড়া বাইক নজর টানছে সকলের। সুরেন্দ্রর কথায়, “স্রেফ রাজনীতির জন্য এত হানাহানি কেন হবে। গাঁয়ে গাঁয়ে গিয়ে লোকজনকে সেটাই বোঝাচ্ছি। যাকে খুশি ভোট দিন। তবে নিজেদের সম্পর্ক কোনও ভাবে নষ্ট করবেন না।” তবে তাঁর আক্ষেপ, সময়ের অভাবে সব গ্রামে পৌঁছতে পারেননি। পরের ভোটে আগে থেকেই প্রচার শুরু করবেন।

কী বলছেন লোকজন? বাঘমুণ্ডির মাদলা গ্রামের পরিমল কুইরির কথায়, “সে দিন আমাদের গ্রামেও এসেছিলেন। আমাদের বুঝিয়ে বলল, পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিন। নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক অটুট রাখুন। সবাই সে কথা কানে তুললে তো ভালই।” সুরেন্দ্রর স্ত্রী সঞ্জতির কথায়, “সকাল হলেই বেরিয়ে যাচ্ছে। স্নান-খাওয়াও মনে হয় সময়ে করছে না। তবে ভাল কাজ। তাই বাধা দিইনি।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE